Monday 17th June 2024
Monday 17th June 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/public_html/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

রিকন্ডিশন গাড়ি নিয়ে মোংলা বন্দরে দুই জাহাজ

মোংলায় রিকন্ডিশন গাড়ি নিয়ে নোঙ্গরকৃত জাহাজ। ছবি-দৈনিক হুংকার।

বিদেশ থেকে আমদানি করা ১৪৫৯ টি বিলাস বহুল গাড়ি নিয়ে মোংলা বন্দরের জেটিতে ভিড়েছে এমভি লোটাস লিডার এবং এমভি মালয়েশিয়া নামের দুটি বাণিজ্যিক জাহাজ। ৭ মে মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় বন্দরের ৭ নম্বর জেটিতে নোঙর করে এমভি মালয়েশিয়া স্টার এবং পৌনে দুইটায় বন্দরের ৯ নম্বর জেটিতে নোঙর করে এমভি লোটাস লিডার। এবার এমভি মালয়েশিয়া স্টার জাহাজে মোট ৮৩৮টি গাড়ি এবং লোটাস লিডার জাহাজে ৬২১ গাড়ি মোংলা বন্দরে আনা হয়েছে। প্রথমবারের মত এ বন্দরে একসাথে ১৪৫৯টি গাড়ি খালাস হয়েছে।
বন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, মোংলা বন্দরে দিয়ে খালাস করা হচ্ছে একের পর এক গাড়িবাহী জাহাজ। এর মধ্যে এক্সিও, প্রিমিও, এলিয়ন, অ্যাকোয়া, নোয়া, মিনিবাস ও এ্যাম্বুলেন্স সহ একাধিক ব্র্যান্ডের রিকন্ডিশন গাড়ি রয়েছে।
মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের উপপরিচালক (জনসংযোগ) মাকরুজ্জামান বলেন, এর আগে জাপান এবং সিঙ্গাপুর থেকে আসা গাড়ি ভর্তি জাহাজ প্রথমে চট্টগ্রাম বন্দরে নোঙর করত। সেখানে কিছু খালাস করে পরবর্তীতে মোংলা বন্দরে আসত। বর্তমানে পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় আমদানিকারকরা সরাসরি মোংলা বন্দরে গাড়ি আমদানি করতে বেশি উৎসাহ বোধ করছে। কারণ মোংলা হয়ে ঢাকায় গাড়ি পৌঁছানোর ব্যয় কম।
মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম শাহিন রহমান বলেন, রাজধানী ঢাকা থেকে সড়ক পথে মোংলা বন্দরের দূরত্ব অন্যান্য বন্দর থেকে অপেক্ষাকৃত কম। পদ্মাসেতু চালু হওয়ায় মোংলা বন্দরের সাথে সড়ক পথে রাজধানীর যোগাযোগ ব্যবস্থা আরও বেশি সহজ হয়েছে। যার ফলে আমদানি-রফতানিকারকরা মোংলা বন্দর ব্যবহারে আগের তুলনায় অনেক বেশি আগ্রহ দেখাচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় এবার মোংলা বন্দরে একসাথে দুটি জাহাজে ১ হাজার ৪৫৯টি গাড়ি এসেছে। আগামী বছরগুলোতে এ বন্দর দিয়ে আরো বেশি গাড়ি আমদানি করা হবে বলে আমার বিশ্বাস।

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।