Monday 17th June 2024
Monday 17th June 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/public_html/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

জমে উঠেছে শরীয়তপুর পার্ক

শরীয়তপুর পার্কে ঘুরতে আসা দর্শনার্থীরা। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুরবাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা ছিল একটি বিনোদন পার্কের। শরীয়তপুর জেলা প্রশাসন শিশুদের প্রাণের দাবী মেনে নিয়ে তৈরী করেছেন শরীয়তপুর পার্ক নামে একটি বিনোদন পার্ক। সম্প্রতি পার্কটির উদ্বোধন হয়েছে। শিশুদের নিয়ে শরীয়তপুর পার্কে আসতে শুরু করেছেন অভিভাবকেরাও। শিশুদের চেঁচামেছি আর হৈ-হুল্লোড়ে মুখোরিত হয়ে উঠেছে পার্কসহ আশপাশের এলাকা। প্রতিদিন বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত পার্ক খোলা থাকে।
শিশুদের নিয়ে পার্কে আসা অভিভাবক ও স্থানীয়রা জনায়, শরীয়তপুর শহরে কোন বিনোদন ব্যবস্থা না থাকায় একটি শূণ্যতা দেখা দিয়েছিল। জেলা প্রশাসন উদ্যোগ নিয়ে স্থানীয়দের অনুদানে দ্রুততম সময়ে শিশুদের বিনোদনের জন্য শরীয়তপুর শিল্প কলা সংলগ্ন ১ একর সরকারি জমির উপরে পার্ক নির্মাণ করে দিয়েছেন। এ পার্কটির সম্পূর্ণ কাজ এখনো শেষ না হলেও শিশুদের বিনোদনের জন্য একটু ব্যবস্থা হয়েছে। ঈদু-উল-ফিতর ও বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে এই পার্কে শিশুরা একটু হলেও বিনোদন পেয়েছে।
পার্কে ঘুরতে ঘুরতে কথা হয় ইশরাত জাহানের সাথে। তিনি তার ৬ বছর বয়সী মেয়ে আদর ও বোনের ছেলে ১২ বছর বয়সী অন্তরকে নিয়ে পার্কে ঘুরতে এসেছে। নড়িয়া উপজেলার ভোজেশ্বরে তার বাড়ি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখে তারা এই পার্কে এসেছেন।
পার্কে খেলা করতে থাকা শিশুরা জানায়, অনেক মজা করতেছি। আমাদের বাড়ির কাছে হলে প্রতিদিন আসতাম।
কল্পনা আক্তার বলেন, সন্তানদের বায়না পূরণ করতেই হয়। তাদের জন্যই আজ আসা। বাচ্চারাও খুব ফূর্তি করতেছে।
পার্কে সার্বিক তত্ত্বাবধানে থাকা শরীয়তপুর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাইনউদ্দিন বলেন, অতি অল্প সময়ে পার্কটি প্রস্তুত করা হয়েছে। দিনরাত পরিশ্রম করেছি যাতে এ ঈদে শিশুদের জন্য পার্কটি খুলে দেয়া যায়। আমাদের পরিশ্রম সফল হয়েছে। যেভাবে শিশুরা ভিড় করছে, আমাদের কল্পনাকেও হার মানিয়েছে। এ জেলায় শিশুদের বিনোদন র্স্পট না থাকায় পুরো জেলার সব বয়সের মানুষেরা এখানে আসছে। এখনো অনেক কাজ চলমান রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।