মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি
মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

জাজিরার বিকে নগরে ভূমি সেবা মঞ্চে গণশুনানি

জাজিরার বিকে নগরে ভূমি সেবা মঞ্চে গণশুনানি
জাজিরার বিকে নগরে ভূমি সেবা মঞ্চে উপস্থিত অতিথিবৃন্দ। ছবি-দৈনিক হুংকার।

“মুজিববর্ষে সব ডিজিটাল, ভূমি সেবা হাতের নাগাল” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ডিজিটাল ভূমিসেবা সম্ভার মানুষের দোরগোড়ায় নিয়ে হাজির হয় শরীয়তপুর জেলা প্রশাসন। শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক মোঃ পারভেজ হাসান এর নির্দেশনা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আসমাউল হুসনা লিজা এর পরিচালনায় গত ডিসেম্বর, ২০২০ হতে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন ভূমি অফিসে আয়োজিত হয়ে আসছে “গণশুনানি ও ভূমি সেবা মঞ্চ”। তারই ধারাবাহিকতায় ১৩ জুন সোমবার বিকালে জাজিরা উপজেলার বিকেনগর হাওলাদার কান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ভূমি সেবা সহজিকরণ ও ভূমি অধিগ্রহণে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ প্রদান সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যা ও অভিযোগ নিষ্পত্তির লক্ষ্যে আয়োজন করা হয় “গণশুনানি ও ভূমি সেবা মঞ্চ”।
অনুষ্ঠিত গণশুনানীতে ভূমি অধিগ্রহণ সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য সেবা গ্রহীতাদের সামনে উপস্থাপনা করা হয়। স্থাবর সম্পত্তি অধিগ্রহণ ও হুকুমদখল আইন ২০১৭ এর বিভিন্ন ধারা, উপধারা ও দফা উপস্থিত জনগণের সামনে উপস্থাপন পূর্বক ভূমি অধিগ্রহণ সম্পর্কিত প্রক্রিয়াসমূহ সহজভাবে ব্যাখ্যা করা হয়। তাছাড়া অনেক সেবা গ্রহীতাকে তাৎক্ষণিক সেবা প্রদান করা হয় এবং সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা প্রদান করা হয়।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আসমাউল হুসনা লিজা এর পরিচালনায় এ গণশুনানিতে উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ভূইয়া রেদোয়ানুর রহমান সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, জনপ্রতিনিধিবৃন্দ, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ ও জনসেবা মঞ্চের মূল আকর্ষণ সাধারণ সেবা গ্রহীতাগণ। উক্ত উন্মুক্ত গণশুনানিতে মানুষের অভূতপূর্ব সাড়া আমাদের করেছে অভিভূত ও আন্দোলিত। জেলা প্রশাসক স্যারের এই উদ্ভাবনী জনমানুষের আরো দোরগোড়ায় পৌঁছে সেবা প্রদানে বদ্ধপরিকর।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।