মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি
মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মাহমুদপুর ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

মাহমুদপুর ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ
মাহমুদপুর ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

শরীয়তপুর সদর উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহজাহান ঢালীর বিরুদ্ধে সরকারি বিভিন্ন প্রকল্পে অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। ইউনিয়ন পরিষদের ১২ জন সদস্যের মধ্যে ১১ জন সদস্য জেলা প্রশাসক ও দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) ওই দুর্নীতিবাজ চেয়ারম্যানের অপকর্ম উল্লেখ করে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।
অভিযোগ থেকে জানা গেছে, শাহজাহান ঢালী চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহনের পর ৫ অর্থবছরে ইজিপিপি, এডিবি, ভূমি হস্তান্তর কর, টিআর, কাবিখা, কাবিটা, মৌলিক থোক বরাদ্দ, এলজিএসপি-৩ ছাড়াও সরকারি বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে সরকারি অর্থ তছরূপ ও আত্মসাৎ করেছেন।
ইউনিয়ন পরিষদ পরিচালনার নীতিমালা অমান্য করে পরিষদের ১১ জন সদস্যকে উপেক্ষা করে এককভাবে প্রকল্প বাস্তবায়ন করছেন এই চেয়ারম্যান। অনেক প্রকল্পে অভিযোগকারী ইউপি সদস্যদের অজান্তে সভাপতি দেখিয়ে নিম্নমানের কাজও করেছেন তিনি।
ইউপি সদস্য হবি খাঁ জানায়, ২০১৯-২০ অর্থবছরে এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের আওতায় একটি পাকা রাস্তা নির্মাণের জন্য তিন লাখ টাকা বরাদ্দ হয়। ওই প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে আমাকে প্রকল্পের সভাপতি দেখানো হয়। পরবর্তীতে চেয়ারম্যান নিজেই নিন্মমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করে এবং আমার স্বাক্ষর জাল করে বিল উত্তোলন করেন। এছাড়া অধিকাংশ প্রকল্পে নামমাত্র কাজ করে আবার কিছিু প্রকল্পে কাজ না করেই সরকারি অর্থ আত্মসাৎ করেছে সে।
ইউপি সদস্য খলিল কাজি জানায়, গত অর্থবছরে এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের আওতায় একটি স্টিলের পুল নির্মাণের জন্য দুই লাখ ১৮ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়। সেই প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য আমাকে সভাপতি দেখিয়ে এবং আমার সাক্ষর জাল করেন চেয়ারম্যান। এছাড়াও চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভিন্ন ভিন্ন প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে।
তবে চেয়ারম্যান শাহজাহান ঢালী বলেন, ইউপি সদস্যরা নিজেদের স্বার্থের জন্য ভিত্তিহীন অভিযোগ করেছে। নিয়ম মেনেই সরকারি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে।
সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনদীপ ঘরাই বলেন, মাহমুদপুর ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সদস্যরা অভিযোগ করেছেন বলে শুনেছি। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা পেলে বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।