শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শরীয়তপুরে গ্রাম পুলিশদের নিরাপত্তা দাবীতে কর্মবিরতি

শরীয়তপুরে গ্রাম পুলিশদের প্যারেড পরিদর্শন করছেন উপজেলা নির্বানী অফিসার জ্যোতি বিকাশ চন্দ্র। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুরে কর্মরত গ্রাম পুলিশ সদস্যদের সপ্তাহের প্রতি রবিবার উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে হাজির হয়ে প্যারোডে উপস্থিত হতে হয়। ৬ নভেম্বর দুপুরে প্যারোড পরিদর্শণ করেন শরীয়তপুর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জ্যোতি বিকাশ চন্দ্র। প্যারেড থেকে জেলা গ্রাম পুলিশ সমিতির সভাপতি মকবুল হোসেন জীবনের নিরাপত্তার বিষয় দাবী করে কর্মবিরতির এই ঘোষণা প্রদান করেন। এই বিষয়ে তারা জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন।
গ্রাম পুলিশ সদস্যরা জানায়, অনেক সময় তাদের সোর্স হয়ে কাজ করতে হয়। তখন অপরাধীরা শত্রু হয়ে দাঁড়ায়। সঠিক সংবাদ পৌঁছাতে না পারলে অফিস থেকে লাঞ্ছিত হতে হয়। এরপর আমাদের কোটাপাড়া নদীর ঝুঁকিপূর্ণ সেতুতে গাড়ি নিয়ন্ত্রণে দায়িত্ব পালন করতে হয়। তখন গাড়ি চালকরা আমাদের উপর গাড়ি উঠিয়ে দেয়। এতে আমাদের মকবুল হোসেন, হুমাউন খান ও লিটন আহত হয়েছে। তাদের ব্যক্তিগত টাকায় চিকিৎসা নিতে হয়। আমরা সামান্য বেতনে চাকুরী করি। এই অবস্থায় ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে গেলে আমাদের সরকারি সহায়তা প্রয়োজন। সরকার আমাদের দিকে তাকালে আমরা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করব। নয়তো আজ দুপুর থেকে কর্মবিরতি ঘোষণা করলাম।
আহত গ্রাম পুলিশ সদস্য লিটন জানায়, সে দায়িত্ব পালন করতে ছিলেন। তখন নির্দেশনা অমান্য করে আমার উপর গাড়ি উঠিয়ে দেয়। এতে আমার হাতে আঘাত লেগে আহত হই। ভিন্ন ভিন্ন ঘটনায় আরো কয়েক জন আহত হয়েছে। আমরা কোন চিকিৎসা সেবা পাচ্ছি না।
সভাপতি হুমাউন খান বলেন, আমরা নিয়মিত দায়িত্ব পালনের পরে অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে ঝুঁকিপুর্ণ সেতুতে গাড়ি চলাচল নিয়ন্তণ করি। তখন গাড়ি চালকরা আমাদের কোন নির্দেশ মানতে চায় না। অনেক সময় আমাদের উপর গাড়ি উঠিয়ে দেয়। আমরা আহত হই।
সদর উপজেলা নির্বাহী অফিনার জ্যোতি বিকাশ চন্দ্র আনসার সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালন করতে থাকেন। এই বিষয়ে আমি সংশ্লিষ্ট দপ্তরের সাথে আলোচনা করব।

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।