মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি
মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

তড়িঘড়ি করে মাঝিকান্দি সরিয়ে নেয়া হচ্ছে ফেরী ঘাট

তড়িঘড়ি করে মাঝিকান্দি সরিয়ে নেয়া হচ্ছে ফেরী ঘাট
তড়িঘরি করে মাঝিকান্দি ফেরী ঘাটের কাজ করছেন শ্রমিকরা। ছবি-দৈনিক হুংকার।

তড়িঘড়ি করে শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার মাঝিকান্দি ঘাটে ফেরী ঘাট সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। একযুগ পরে এই ঘাটে আবার ফেরী আসবে ভেবে শরীয়তপুরবাসীর মাঝে আনন্দের জোয়ার দেখা গেছে। আনন্দ বিলিন হয়ে গেছে তখনই যখন শোনা গেছে হালকা যান ছাড়া কোন গাড়ি পার হবে না এই ঘাট দিয়ে।
মঙ্গলবার মাঝির ঘাটে গিয়ে দেখা যায়, শরীয়তপুর-মাঝিরঘাট সড়কের উত্তর প্রান্তে পদ্মা নদী শাসন বাঁধ ঘেষে জিও ব্যাগ ও বালু ফেলে ফেরী ঘাট নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। আগমী শুক্রবারের মধ্যে ঘাট নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করার লক্ষমাত্রা নিয়ে কাজ করছেন বাংলাদেশ নৌ-যান কর্তৃপক্ষ। ঘাট নির্মাণ কাজ শেষ হলে মাদারীপুর জেলার শিবচরের বাংলা বাজার থেকে পল্টুন এনে মাঝির ঘাট দিয়ে ফেরী চলাচল শুরু হবে।
বিআইডব্লিউটিএ’র প্রকৌশলী মো. ফয়সাল নির্মাণাধীন মাঝিকান্দি ফেরী ঘাট থেকে জানায়, নদীর প্রবল স্রোতে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ও মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাটে ফেরী পারাপার বিঘ্নিত হয়। ইতোমধ্যে দুইবার ফেরী পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা লাগে। তাই কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌ-পথে ফেরী চলাচল বন্ধ রয়েছে। হালকা যান ও এ্যাম্বুলেন্স পারাপারের জন্য সীমিত ভাবে ফেরী সার্ভিস চালু রাখার জন্য মাঝিকান্দি ফেরী ঘাট চালু করা হবে। তাই দ্রুত গতিতে কাজ চলছে। আগামী শুক্রবারের মধ্যে কাজ সম্পন্ন করা হবে। পরবর্তীতে বাংলা বাজার ঘাট থেকে পল্টুন এনে ফেরী পারাপার চালু করা হবে। জাজিরা অংশে ভারি যান চলাচলের উপযোগী রাস্তা না থাকায় আপাতত ভারী কোন যান এই ফেরীতে পার হবে না।
তিনি আরও বলেন, বর্তমানে ফেরী ঘাট চালু করতে কিছু দোকান সরিয়ে ফেলা হবে। পরবর্তীতে বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের অধিগ্রহণকৃত জায়গায় রাস্তা করা সম্ভব হলে ভারী যানবাহন চলাচল শুরু হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।