বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পদ্মা সেতুতে শেষ স্ল্যাব বসছে সোমবার

পদ্মা সেতুতে শেষ স্ল্যাব বসছে সোমবার
পদ্মা সেতুতে শেষ স্ল্যাব বসানো হচ্ছে। ছবি-দৈনিক হুংকার।

পদ্মা সেতুতে যান চলাচল পথের শেষ স্ল্যাব বসছে ২৩ আগস্ট সোমবার। এরপর আনুষঙ্গিক কাজ শেষে সেতু দিয়ে যানবাহন চলাচলের উপযোগী হবে। রূপ পাবে সড়কপথ যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দিতে বাকি থাকবে শুধু পিচঢালাই। আগামী এপ্রিলে পুরো কাজ শেষের আশা করেছে কর্তৃপক্ষ।
পদ্মা সেতু প্রকল্প নতুন এক মাইলফলক পূরণ করেছে সোমবার। এদিন সেতুতে শেষ স্ল্যাব বসানো হয়েছে। এর মাধ্যমে সেতুটির ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচল করার ক্ষেত্রে বাকি থাকবে শুধু পিচঢালাই।
প্রকল্প সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানিয়েছেন, পিচঢালাইয়ের কাজ শুরু হবে আগামী অক্টোবর মাসের শেষ দিকে। এ কাজে তিন মাসের মতো সময় লাগতে পারে। সেতুর ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানী (এমবিইসি) সেতু বিভাগকে জানিয়েছে, তারা আগামী ৩০ এপ্রিলের মধ্যেই সব কাজ শেষ করবে।
সব মিলিয়ে আগামী মে মাসেই পদ্মা সেতু যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া সম্ভব। তবে সেতু বিভাগ জানিয়েছে, দিনক্ষণ ঠিক করা হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলোচনার পর।
পদ্মা সেতুতে গত বছরের ডিসেম্বরে সর্বশেষ ইস্পাতের অবকাঠামো (স্প্যান) বসানোর পর মাওয়া ও জাজিরার মধ্যে সংযোগ স্থাপিত হয়। এরপর কংক্রিটের স্ল্যাব বসানোর মাধ্যমে তৈরি করা হচ্ছে পুরো ভৌত কাঠামো। স্ল্যাবের ওপরে পিচঢালাইয়ের মাধ্যমে যানবাহন চলাচলের পথ তৈরি করা হয়।
পদ্মা সেতুতে গত রোববার সন্ধ্যা পর্যন্ত ২ হাজার ৯১৭টি কংক্রিটের স্ল্যাবের মাত্র ছয়টি বসানো বাকি ছিল। রাতের মধ্যেই পাঁচটি স্ল্যাব বসানোর কথা। প্রকল্প কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, শেষ স্ল্যাবটি বসানো হয়েছে সোমবার সকালে।
পদ্মা সেতু প্রকল্পের পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, স্ল্যাব বসানো হলে সেতুর সাইড ওয়ালের কাজে বেশি সংখ্যক জনবল যুক্ত করা হবে। এখন প্রকল্পের কাজে বড় কোনো বাধা নেই। জুনের মধ্যেই সেতুর কাজ শেষ হবে।
পদ্মা সেতু প্রকল্প নতুন এক মাইলফলক পূরণ করল সোমবার। এদিন সেতুতে শেষ স্ল্যাব বসানো হয়েছে। এর মাধ্যমে সেতুটির ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচল করার ক্ষেত্রে বাকি থাকবে শুধু পিচঢালাই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।