মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি
মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শেখ হাসিনার বাংলাদেশে আর কেউ গৃহহীন থাকবে না: নাহিম রাজ্জাক এমপি

শেখ হাসিনার বাংলাদেশে আর কেউ গৃহহীন থাকবে না: নাহিম রাজ্জাক এমপি
গোসাইরহাটে চরজানপুরে আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শণ পরবর্তী আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখছেন নাহিম রাজ্জাক এমপি। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নাহিম রাজ্জাক বলেছেন, শেখ হাসিনার বাংলাদেশে আর কেউই গৃহহীন থাকবেনা। জাতির জনকের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুখে যা বলেন কাজে তা পরিনত করেন। তিনিই পৃথিবীর মধ্যে একজন সফল রাষ্ট্রনায়ক যিনি এক দিনে সারাদেশের ৬৬ হাজার ১৮৯টি ঘর একযোগে বিতরণ করেছেন। এটা জাতির জন্যা বলেই তার পক্ষে সম্ভব হয়েছে। তিনি ৮ জুন মঙ্গলবার তার নির্বাচনী এলাকা গোসাইরহাট উপজেলার কুচাইপট্রি ইউনিয়নের চরজানপুরে আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এলাকা পরিদর্শন কালে এসব কথা বলেন।
নাহিম রাজ্জাক বলেন, বাংলাদেশ সরকার সারাদেশে ৬৬ হাজার ১৮৯টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে আধা-পাকা ঘর দিয়েছে। প্রথম দফায় ৬৬ হাজারের বেশি মানুষকে ঘর দেয়া হয়েছে। দ্বিতীয় দফায় আগামী মাসে আরো এক লক্ষ ঘর তৈরি করে দেয়া হবে। এসব বাড়িঘর ছাড়াও ৩৬টি উপজেলায় ৭৪৩টি ব্যারাক নির্মাণের মাধ্যমে আরও ৩ হাজার ৭১৫টি পরিবারকে পুনর্বাসন করা হয়েছে। তিনি বলেন, মুজিব বর্ষের উপহার হিসেবে সব মিলিয়ে ৬৯ হাজার ৯০৪টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমিসহ ঘর তৈরি করে দিচ্ছে সরকার। আজ আমরা দাইমী কোদালপুরে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে ৬৬টি ঘর বিতরণ করছি।
সরকারের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পে জেলার স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তা নিয়ে ভূমিহীন এবং গৃহহীন ব্যক্তিদের একটা তালিকা তৈরি করা হয়। যার সাথে জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসনসহ সকল সরকারি-বেসরকারি দপ্তর-সংস্থা, জনপ্রতিনিধি সবাই সম্পৃক্ত ছিলেন। তাদের মাধ্যমে তালিকা করা হয়। তার ভিত্তিতে বাংলাদেশের ৬৪ টি জেলার ৪৯২টি উপজেলায় ভূমিহীন-গৃহহীন যে পরিবারের সংখ্যা সেটা আমরা পেয়েছি তা হলো ২ লক্ষ ৯৩ হাজার ৩৬১ জন।
আমরা একটা নীতিমালা করেছি প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনক্রমে। সেই নীতিমালায় বলা আছে বিধবা, প্রতিবন্ধী, অসহায়, বয়স্ক তাদের অগ্রাধিকার দিবে। আবার এই তালিকা থেকে যারা অতি-দরিদ্র তাদের জন্য আগে ঘরটা করে দেয়া হয়েছে। দুই রুমের আধা-পাকা ঘরের প্রতিটির নির্মাণ ব্যয় ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকা।
মালামাল পরিবহনের জন্য অতিরিক্ত ৪ হাজার টাকা দেয়া হচ্ছে। সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যলয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায়। অর্থ বরাদ্দ দেয়া হচ্ছে তিনটা স্থান থেকে। আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা এবং ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে এবং ভূমি মন্ত্রণালয়ের গুচ্ছ-গ্রাম প্রকল্প থেকে।
এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন, শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান ঢালী, গোসাইরহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আলমগীর হোসাইন, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি শাহজাহান সিকদার। উপস্থিত ছিলেন গোসাইরহাট থানা অফিসার ইনচার্জ মোল্যা সোহেব আলী, গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবুল খায়ের শেখ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মোহাম্মদ শাহজাহান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ সরদার, কোদালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম মিজানুর রহমান সরদার, কুচাইপট্টি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন স্বপন, আলাউল পুরি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ওসমান বেপারী, নলমুড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান, গোসাইরহাট উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আউয়াল সরদার, দপ্তর সম্পাদক মাস্টার মো. আবুল কালাম, উপদপ্তর সম্পাদক শেখ মো. কামাল হোসেন, গোসাইরহাট উপজেলা যুবলীগ সভাপতি নুরুজ্জামান মৃধা, ডামুড্যা উপজেলা যুবলীগ সভাপতি বিএম ছাত্তার, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কোতোয়াল মোহাম্মদ টিপু সুলতান সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান, কৃষক লীগের আহ্বায়ক আবুল কালাম বেপারী, যুগ্ম আহবায়ক জসিম উদ্দিন হাওলাদারসহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগ, সহযোগী ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দাদের জন্য কর্মসংস্থান ও তাদের জীবিকার বিষয়টি গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করা হচ্ছে বলে জানন সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক। তিনি বলেন, কৃষি জমি যাতে প্রকৃত ভূমিহীনরাই ভোগ করতে পারে সে বিষয়ে জেলা ও উপজেলা প্রশাসনকে আমি বলেছি। এসময় তিনি স্থানীয় জনগণের উদ্দেশ্যে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বদৌলতে ও তার ইচ্ছায় আপনারা খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে নদী বিচ্ছিন্ন চরজানপুর ও মাঝের চরে বিদ্যুৎ সংযোগ পেয়ে গেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।