বুধবার, ২৫ মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরি
বুধবার, ২৫ মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শরীয়তপুরে এসডিএসের উদ্যোগে জিংক ধানের ভ্যালু চেইন এক্টরদের সভা অনুষ্ঠিত

শরীয়তপুরে এসডিএসের উদ্যোগে জিংক ধানের ভ্যালু চেইন এক্টরদের সভা অনুষ্ঠিত
শরীয়তপুরে এসডিএসের উদ্যোগে জিংক ধানের ভ্যালু চেইন এক্টরদের সভায় বক্তব্য রাখছেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আমির হামজা। ছবি-দৈনিক হুংকার।

এসডিএস কর্তৃক পরিচালিত হারভেষ্ট প্লাস বাংলাদেশের সহযোগিতায় জিংক ধানের ভ্যালু চেইন এক্টরদের নিয়ে সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১ জুন মঙ্গলবার শরীয়তপুর শহরের এসডিএস প্রধান কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় শরীয়তপুর ও মাদারীপুর জেলার ২০জন ধান ব্যাবসায়ী, ১৩ জন নেতৃত্বদানকারী কৃষক, ৩ জন চালকল মালিক, ৩ জন চাল ব্যবসায়ী, ৫ জন বীজ ডিলার, ২ জন বীজ কোম্পানীর প্রতিনিধি অংশ গ্রহণ করে। এসডিএস নির্বাহী পরিচালক রাবেয়া রহমানের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কৃষিবিদ আমির হামজা। এসডিএসের পরিচালক বিএম কামরুল হাসান বাদল এর সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা মার্কেটিং অফিসার মোঃ ইউসুফ হোসেন, এসডিএসের প্রধান উপদেষ্টা মজিবুর রহমান, বিএডিসির সহকারী পরিচালক জাকিয়া বেগম লিজা, জেলা খাদ্য পরির্দশক ইকবাল মাহমুদ, হারভেষ্ট প্লাস বাংলাদেশের সিবিসি প্রকল্পের প্রকল্প সমন্বয়কারী আবু হানিফ, উর্ধ্বতন কর্মকর্তা জাহিদ হোসেন ও রুহুল কুদ্দুস।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কৃষিবিদ আমির হামজা বলেন, জিংক ধান অন্যান জাতের তুলনায় আগাম পাঁকে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশী ও ফলন বেশী হয়। বিশেষ অতিথি জেলা মার্কেটিং অফিসার ইউসুফ হোসেন ধান ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে বলেন, জিংক ধান ও চাল সংগ্রহের সময় যেন অন্যান জাতের ধানের সাথে এর মিশ্রন না হয় সেদিকে বিশেষ ভাবে নজন রাখবেন।
হারভেষ্ট প্লাস বাংলাদেশের উর্ধতন কর্মকর্তা জাহিদ হোসেন মানব দেহে জিংকের প্রয়োজনীয়তা ও জিংক ধানের গুরুত্ব নিয়ে আলোচনা করেন। এসডিএসের প্রকল্প সমন্বয়কারী কৃষিবিদ মোস্তফা কামাল জানান, বোরো মৌসুুমে এ পর্যন্ত জিংক সমৃদ্ধ ৮৫২ মেট্রিক টন জিংক ধান সংগ্রহ করা হয়েছে।
সভাপতির বক্তব্যে এসডিএস নির্বাহী পরিচালক বলেন, মানব দেহে জিংকের গুরুত্ব বিবেচনা করে কৃষক ভাইদের জিংক ধান চাষে আরো বেশী উদ্যোগী হতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।