সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি
সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শরীয়তপুর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কে বিদায়ী অভিনন্দন

শরীয়তপুর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কে বিদায়ী অভিনন্দন
শরীয়তপুর জেলা পরিষদের বিদায়ী প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ দিদারুল আলম এর হাতে শুভেচ্ছা উপহার তুলে দিচ্ছেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদার। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ দিদারুল আলম (উপসচিব) পদোন্নতি লাভ করে বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের পরিচালক পদে পদোন্নতি লাভ করেছেন। প্রায় ২ বছর কাল সময় এ কর্মকর্তা শরীয়তপুর জেলা পরিষদে সততা ও নিষ্ঠার সাথে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ২০১৯ সালের ২ সেপ্টেম্বর যোগদান করে ২৩ মে ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত দায়িত্ব পাল করেছেন। গত ৩০ মে রবিবার জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে তাকে আনুষ্ঠানিক ভাবে বিদায়ী অভিনন্দন জানানো হয়।
জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বিদায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নবাগত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শামীম হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগ সাধাারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এমএ কাইয়ুম পাইক, মনসুর আজাদ শামীম, সদস্য কামরুজ্জামান উজ্জল, জাকির হোসেন দুলাল, হারুন অর রশীদ রাড়ি, শাখাওয়াত হোসেন, এ্যাড রওশনারা বেগম, এ্যাড রাশিদা মির্জা, কহিনুর সুলতানা দোলাসহ সকল সদস্যগণ। এছারাও উপস্থিত ছিলেন সহকারী প্রকৌশলী সুকদেব বিশ্বাস, জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ নুর হোসেন। উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবদুল্লাহ আল মামুন, হিসাব রক্ষক কর্মকর্তা জসিম মীরসহ সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।
সভাপতির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদার বলেন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ দিদারুল আলম তার কর্মকালে জেলা পরিষদের কাজে সচ্ছতা ও জবাবদিহিতার অনন্য নজির স্থাপন করে গেছেন। তিনি আমার তথা জাতির জনকের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জনবান্ধব প্রশাসন তৈরীর জন্য কাজ করে গেছেন। যার ফলোশ্রুতিতে তিনি সরকারের আরো অধিক গুরুত্বপুর্ণ পদে পদোন্নতি লাভ করেছেন। আমি আমার ব্যক্তিগত ও জেলা পরিষদের সকল সদস্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পক্ষ থেকে তার এ সাফল্যের জন্য অভিনন্দন জানাই। সেই সাথে তার নতুন কর্মস্থলেও সাফল্যের ধারাবাহিকাতা বজায় রেখে উন্নয়নের শিখরে পৌঁছে যাবেন বলে বিশ্বাস করি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।