রবিবার, ১১ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে শাবান, ১৪৪২ হিজরি
রবিবার, ১১ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ফেসবুকে সরকার বিরোধী পোষ্ট লাইক-শেয়ারের অভিযোগে শরীয়তপুর ইফা’র মাস্টার ট্রেইনার গ্রেপ্তার

ফেসবুকে সরকার বিরোধী পোষ্ট লাইক-শেয়ারের অভিযোগে শরীয়তপুর ইফা’র মাস্টার ট্রেইনার গ্রেপ্তার
মুস্তাকিম বিল্লাহ। ফাইল ফটো।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে ভারতের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমন উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের একটি ফেক আইডি থেকে পোস্ট ছবি এডিট করে লাইক-শেয়ার করে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মুস্তাকিম বিল্লাহ (৩৭) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পালং মডেল থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত মুস্তাকিম বিল্লাহ শরীয়তপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের (ইফা) মাস্টার ট্রেইনার পদে কর্মরত রয়েছেন। এই ঘটনায় তাকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করেছে ইফা কর্তৃপক্ষ। গ্রেফতারকৃত মুস্তাকিমকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
পালং মডেল থানা সূত্র জানায়, ভারতের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমন উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদির ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের একটি ফেক আইডি থেকে পোস্টকৃত ছবি এডিট করে লাইক-শেয়ার করে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মুস্তাকিম বিল্লাহর বিরুদ্ধে পালং মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। পালং মডেল থানার উপ-পরিদর্শক রাজিব শিকদার ২৮ মার্চ একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর আসামী মোস্তাকিম বিল্লাহকে শরীয়তপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সামন থেকে গ্রেফতার করে ২৯ মার্চ দুপুরে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
গ্রেপ্তারকৃত মুস্তাকিম বিল্লাহ মাদারীপুর পৌরসভার ২নং নতুন শহর এলাকার খন্দকার আবদুল লতিফের ছেলে। তিনি ইসলামিক ফাউন্ডেশন শরীয়তপুর জেলা কার্যালয়ের মাস্টার ট্রেইনার পদে কর্মরত ছিলেন। ইতোমধ্যে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃপক্ষ।
শরীয়তপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক রনি বলেন, এনএসআই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ইফা’র মাস্টার ট্রেইনার মুস্তাকিম বিল্লাহকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের অধীনে পরিচালিত মসজিদ ভিত্তিক গণশিক্ষা কার্যক্রমের মাস্টার ট্রেইনার মুস্তাকিম বিল্লাহকে প্রকল্প পরিচালক ফারুক আহমেদ স্বাক্ষরিত সাময়িক বরখাস্ত করে আমাকে একটি অনুলিপি দিয়েছে।
পালং মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আসলাম উদ্দিন বলেন, ফেসবুকে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে ভারতের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমন উপলক্ষে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে পালং মডেল থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয়। পরে অভিযান চালিয়ে মামলার আসামি মুস্তাকিম বিল্লাকে গেপ্তার করা হয়। তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।