বুধবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ই রজব, ১৪৪২ হিজরি
বুধবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে কল্যানকামী উন্নত দেশে পরিনত করেছে: জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে কল্যানকামী উন্নত দেশে পরিনত করেছে: জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান
শরীয়তপুর জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তরের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন জেলা প্রশাসক মোঃ পারভেজ হাসান। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক মোঃ পারভেজ হাসান বলেছেন জাতির জনকের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মানুষের বিপদের বন্ধু। কারণ বিপদে পড়লে প্রকৃত বন্ধুকে চেনা যায়। তিনি ৪ ফেব্রুয়ারী শরীয়তপুর জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে ৬টি মারাত্মক রোগে আক্রান্ত জেলার রোগীদের মাঝে ৪৬ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার চেক বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।
জেলা প্রশাসক বলেন, প্রধানমন্ত্রী তার ভালবাসার নিদর্শণ হিসেবে ৬টি মারাত্মক রোগ ক্যান্সার, কিডনী, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোকে প্যারালাইজড, জন্মগত হৃদরোগ ও থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত রোগীদের উন্নত চিকিৎসার জন্য একটি তহবিল গঠন করেছেন। যার মাধ্যমে দেশের এ মারাত্মক রোগে আক্রান্ত রোগীরা উন্নত চিকিৎসা পেতে পারে তার জন্য এ অর্থ সহায়তা প্রধান করেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের দেশকে কল্যানকামি উন্নত দেশে পরিনত করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন। তারই অংশ হিসেবে তিনি এক দিনের মধ্যে দেশের ৬৭ হাজার গৃহ ও ভূমিহীন মানুষকে ঘর ও জমি দিয়ে বিশ্বব্যাপী নজির স্থাপন করেছেন। আর এটা সম্ভব হয়েছে জাতির জনকের কন্যার নেতৃত্বের বদৌলতে।
জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে চেক বিতরণ পূর্ব আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা সমাজ সেবা বিভাগের উপ-পরিচালক মোঃ ফয়জুল বারি। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শামীম হোসেন। জেলা সমাজ সেবার রেজিষ্ট্রেশন অফিসার মোঃ উজ্জল মুন্সীর সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন সমাজ সেবার প্রধান সহকারী পিযুষ কুমার দত্ত সহ বিভিন্ন উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তাগণ। পরে প্রধান অতিথি অনুদান প্রাপ্ত রোগীদের হাতে ৫০ হাজার টাকা করে জেলার ৯৩ জন রোগীকে ৪৬ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার চেক তুলে দেন।

 


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।