বৃহস্পতিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

জাজিরা সেনানিবাসে নবগঠিত ২৭ আর ই ব্যাটালিয়নে পতাকা উত্তোলন

জাজিরা সেনানিবাসে নবগঠিত ২৭ আর ই ব্যাটালিয়নে পতাকা উত্তোলন
জাজিরা সেনানিবাস ২৭ আর ই ব্যাটালিয়নের পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি মেজর জেনারেল মোহাম্মদ সাইফুল আবেদীন বিএসসি জিপি এনডিসি পিএসসি পদাতিক ডিভিশন এবং এরিয়া কমান্ডার এর হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেওয়া হচ্ছে। ছবি-দৈনিক হুংকার।

৮ নভেম্বর রবিবার দুপুরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জিওসি ৯ পদাতিক ডিভিশন এরিয়া কমান্ডার সাভার এরিয়া কর্তৃক ৯৯ কম্পোজিট ব্রিগেড এর অধিনস্থ নবগঠিত ২৭ আর ই ব্যাটালিয়ন এর পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ৩১১৬ মেজর জেনারেল মোহাম্মদ সাইফুল আবেদীন বিএসসি জিপি এনডিসি পিএসসি পদাতিক ডিভিশন এবং এরিয়া কমান্ডার। এসময় প্রধান অতিথিকে অভ্যর্থনা জানান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খন্দকার তহিদ মুরাদ, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, কমান্ডার ৯৯ কম্পোজিট ব্রিগেড। অতপর কমান্ডার বিএ ৭৪৬৫ মেজর কাজী আল আমিন অপু এর নেতৃত্বে ২৭ আর ই ব্যাটালিয়নের একটি চৌকস দল কুচকাওয়াাজ প্রদর্শন এবং প্রধান অতিথি কে সালাম প্রদান করেন।
অনুষ্ঠানে জিওসি ৯ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার সাভার (এরিয়া) আনুষ্ঠানিক ভাবে নবগঠিত ২৭ এর এই ব্যাটালিয়নের পতাকা উত্তোলন করেন। অনুষ্ঠানের সমাপনী ভাষনে প্রধান অতিথি মসজিদ পতাকা উত্তোলন করে অবিসংবাদিত নেতা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী স্বাধীনতার স্বপ্নদ্রোষ্টা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকীতে এই মহতি অনুষ্ঠান একটি অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করছে বলে উল্লেখ করেন। তিনি সশস্ত্র বাহিনীর আধুনিকায়নে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং বর্তমান সরকারের অবদানকে স্মরণ করেন তিনি বলেন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য এবং সংশ্লিষ্ট সকল দেশি-বিদেশি ব্যক্তিবর্গের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে ২৭ আর ই ব্যাটালিয়নের ভূমিকা প্রশংসার দাবিদার।
গত ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সালে গঠিত হয়ে অত্যন্ত স্বল্প সময়ে ২৭ আর ই ব্যাটালিয়নের অর্জন প্রশংসাপূর্ণ এবং অনুকরণীয়। এ প্রেক্ষিতে জিওসি ৯ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার সাভার (এরিয়া) তার সমাপনী ভাষণে ২৭ আর এই ব্যাটেলিয়ানকে ভবিষ্যতে আরও উত্তরোত্তর উন্নতি ও অগ্রগতির ধারা বজায় রাখার জন্য দিকনির্দেশনা প্রদান করেন। একটি সুশৃংখল ও বর্ণিত কুচকাওয়াাজ পরিদর্শন করে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে কমান্ডার ৯৯ কম্পোজিট সামরিক ও বেসামরিক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।