রবিবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
রবিবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বঙ্গমাতা ছিলেন ত্যাগ ও সুন্দরের সাহসী প্রতিক

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৯০তম জন্মদিন উপলক্ষে সেলাই মেশিন বিতরণ করছেন জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের। ছবি-দৈনিক হুংকার।

———-জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের
॥ হুংকার রিপোর্ট ॥ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব-এঁর ৯০তম জন্মদিবস উদ্যাপন উপলক্ষ্যে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের যৌথ আয়োজনে “বঙ্গমাতার জীবন ও কর্ম” শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল এবং কর্মক্ষম ও দুস্থ মহিলাদের মধ্যে সেলাই মেশিন ও নগদ টাকা বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের বলেছেন, ত্যাগ ও সুন্দরের সাহসী প্রতিক ছিলেন বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব।
বঙ্গমাতার সংগ্রাম ও ত্যাগের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘ত্যাগের মধ্যে দিয়ে একটা সংসারকে সুন্দর করা যায়, একটা প্রতিষ্ঠানকে সুন্দর করা যায়, একটা দেশকে সুন্দর করা যায়। চাওয়া-পাওয়ার ঊর্ধ্বে উঠে নিজেকে বিলিয়ে দেওয়ার চেয়ে বড় আর কিছু হয় না। বঙ্গমাতা সেই দৃষ্টান্তই দেখিয়ে গেছেন। ’
জেলা প্রশাসক বলেন, ‘মহীয়সী নারী শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ছিলেন বাঙালি জাতির অধিকার আদায়ের সংগ্রামে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একজন যোগ্য ও বিশ্বস্ত সহচর এবং বাঙালির মুক্তি সংগ্রামের সহযোদ্ধা। বঙ্গমাতা অসাধারণ বুদ্ধি, সাহস, মনোবল, সর্বসংহা ও দূরদর্শিতার অধিকারী ছিলেন এবং আমৃত্যু দেশ ও জাতি গঠনে অসামান্য অবদান রেখে গেছেন।
আজকে বঙ্গমাতার জন্মদিন। সেই জন্মের পর ৩ বছর থেকেই পিতা-মাতা সব হারিয়ে সারাটা জীবন শুধু সংগ্রামই করে গেছেন। কষ্টই করে গেছেন। কিন্তু এই দেশের স্বাধীনতা, এই স্বাধীনতার জন্য তিনি যে কত দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ছিলেন সেটা আমরা জানি। এই দেশ স্বাধীন হবে, বাংলাদেশের মানুষের মুক্তি আসবে, বাংলাদেশের মানুষ ভালো থাকবে। সংসার সামলে প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুকে তার সহধর্মিনী সহযোগিতা করতেন।
শরীয়তপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহবুর রহমান শেখ, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক খাদিজাতুন আসমা। ভার্চূয়াল মিডিয়ায় যুক্তহন জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদার, পুলিশ সুপার এস. এম আশরাফুজ্জামান, সিভিল সার্জন এসএম ডাঃ আব্দুল্লাহ আল মুরাদ।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।