বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি
বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

এমপি’র হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন শরীয়তপুর মাদরাসা ও মসজিদ রক্ষা কমিটি

আশ্রাফুল উলুম কওমী মাদ্রাসা-মসজিদ রক্ষা কমিটির নেতৃবৃন্দ ইকবাল হোসেন অপু এমপি’র সাথে মতবিনিময় করছেন। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুর আশ্রাফুল উলম কওমী মাদরাসা-মসজিদ রক্ষা কমিটি শরীয়তপুর-১ আসনের সাংসদ ইকবাল হোসেন অপুর সাথে সাক্ষাৎ করেছেন। বুধবার সকাল ১০টায় জেলার সকল কওমী মাদরাসার শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা সাংসদ ইকবাল হোসেন অপুর বাস ভবনের সামনের রাস্তায় অবস্থান করেন। পরে মাদরাসা ও মসজিদ রক্ষা কমিটির নেতাদের সাথে সংক্ষিপ্ত আলোচনা হয়। এই সময় শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান উজ্জল ও শরীয়তপুর পৌরসভা আওয়ামী লীগ সভাপতি এমএম জাহাঙ্গীর উপস্থিত ছিলেন।
মাদরাসা-মসজিদ রক্ষা কমিটির মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আশ্রাফুল উলম কওমি মাদরাসা রক্ষা কমিটির আহবায়ক মাওলানা আবু বকর, সদস্য সচিব মাওলানা সাব্বির আহমেদ ওসমানী, শরীয়তপুর উলামা পরিষদ সভাপতি মাওলানা শফিউল্লাহ খান, ইসলামী আন্দোলনের জেলা সভাপতি হাফেজ মাওলানা শওকত আলী, জেলা ফরায়েজী আন্দোলন সভাপতি মাওলানা আ: বাতেন ফরিদী, জেলা মুজাহিদ কমিটির সভাপতি হাফেজ কেরামত আলী, জেলা জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম সভাপতি মাওলানা ইদ্রিস কাসেমী, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মইনুদ্দিন কাসেমী, জেলা খেলাফত মসলিসের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মাহদী হাসান, সাইখুল হাদিস মাওলানা নাঈম আব্বসী, ইসলামী আন্দোলন নেতা মুফতি তোফায়েল আহমাদ কাসেমী, মাওলানা ফারুকুল ইসলাম, মাওলানা মুসলিম উদ্দিন, মাওলানা আব্দুর রহমান ফরাজী, মাওলানা নাছির উদ্দিন খান প্রমূখ।
উপস্থিত নেতৃত্ববৃন্দ বলেন, শরীয়তপুর আশ্রাফুল উলম কওমী মাদরাসা ভেঙ্গে উপজেলা ভূমি অফিস নির্মাণের চেষ্টা চলছে। আমাদের মাদরাসা সরিয়ে অপর অংশে নেয়ার জন্য বলছে। তাও এমন ভাবে বলেছেন যে সরকার সেই জমি মাদরাসার নামে দিতে পারবেনা। এই বিষয়ে সমন্বয় করার জন্য আমরা এমপি মহোদয়ের কাছে এসেছি। এমপি মহোদয় আমাদের আশস্ত করেছেন। তিনি সরেজমিন পরিদর্শণ করবেন। পরে জেলা প্রশাসনের সাথে সমন্বয় করে একটি ব্যবস্থ গ্রহন করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।