মঙ্গলবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
মঙ্গলবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

এনজিওরা সঠিক তথ্য দিয়ে রাষ্ট্রের নিরাপত্তা রক্ষায় অবদান রাখতে পারে: পুলিশ সুপার

জেলার বেসরকারি উন্নয়ন সংগঠন সমূহের কর্মকর্তা ও পরিচালকদের সাথে ভিডিও মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখছেন পুলিশ সুপার এস.এম আশরাফুজ্জামান। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার এস.এম আশরাফুজ্জামান বলেছেন, এনজিওরা দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে সাধারণ মানুষের নিয়ে কাজ করে। সরকারের কোন সংস্থায় এতটা প্রত্যন্ত অঞ্চলে মানুষের কাছে পৌঁছতে পারেনা। পৌঁছলেও সাধারণ মানুষ এনজিওদের সাথে যেভাবে কথা বলে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যদের সাথে সে ভাবে কথা বলেনা। তাই এনজিওরা মানি লন্ডারিং, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও আন্ডার ওয়াল্ডের কার্যক্রম ও অর্থ লেনদেন সম্পর্কে তথ্য দিয়ে রাষ্ট্রের নিরাপত্তা বিধানে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে সহায়তা করতে পারে। দেশের মাদক, সন্ত্রাস, বাল্যবিয়ে, যৌতুক, সামাজিক হানাহানি, জেল খেটে বের হওয়া বিডিআর সদস্য, সর্বহারা ও লাল পতিকা বাহিনীর কার্যক্রম নিয়ে সঠিক তথ্য প্রদান করলে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যদের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন সহজ হবে। সেই সাথে দেশের মানুষের শান্তি ও নিরাপত্তা সুনিশ্চিত হবে।
তিনি ২৭ জুলাই সোমবার জেলার বেসরকারি উন্নয়ন সংগঠন সমূহের কর্মকর্তা ও পরিচালকদের সাথে ভিডিও মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন।
এসময় জেলার এনজিও’র পক্ষ থেকে এসডিএস, নুসা, ব্র্যাক, টিএমএসএস, সোডেপ, ব্যুরো বাংলাদেশ সহ ১৫টি বেসরকারি সংস্থার পরিচালক ও কর্মকর্তারা পুলিশ সুপারের সাথে সংযুক্ত ছিলেন। এছাড়াও জেলার পালং, জাজিরা, ভেদরগঞ্জ, গোসাইরহাট ও ডামুড্যা থানার অফিসার ইনচার্জগণ এই সভায় ছিলেন। এসময় এনজিও’র পক্ষ থেকে ব্র্যাক প্রতিনিধি সমীর কুন্ডু বলেন, আমরা আসন্ন ঈদুল আযহার সকল গরু হাটে করোনা প্রতিরোধের সচেতনতা মূলক ব্যানার ও লিটলেট বিতরণ ও মাইকিং এর কাজ করেছি।
শরীয়তপুর জেলার এনজিও এসডিএসের নির্বাহী পরিচালক রাবেয় বেগম বলেন, আমরা দূর্গত মানুষের সেবার জন্যই এসডিএসের প্রতিষ্ঠা করেছি। গত বছর নদী ভাঙনে শরীয়তপুর জেলায় কাজ করেছি। এবারো বন্যায় মোকাবেলায় শরীয়তপুরসহ আরো একটি জেলায় কাজ করার প্রস্তুতি নিচ্ছি। এসময় তিনি পুলিশ সুপারকে সব ধরণের সহায়তার আশ্বাস দিয়ে বলেন, এসডিএস সর্বদাই সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধের সোচ্চার থেকে কাজ করছে।
নুসার উপপরিচালক জয়দেব চন্দ্র কুন্ডু বলেন, আমরা সর্বদাই আইনের শাসনে বিশ্বাসী। তাই সরকারের সকল আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকে শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি দারিদ্র বিমোচনে কাজ করে যাচ্ছি।
পুলিশ এস.এম আশরাফুজ্জামান সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, মাস্ক পড়া নিশ্চিত করার জন্য এনজিও প্রতিনিধিরা সচেতনতা মূলক কাজ করতে পারেন। তিনি এনজিওদের সহযোগিতা চেয়ে বলেন, পুলিশের সাথে এনজিওদের হাত একত্র করে দেশের উন্নয়ন কাজে লাগিয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মানে এগিয়ে যেতে চাই।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।