রবিবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৪ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
রবিবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

এক দিনেই মৃত পুলিশ সদস্যের পেনশন কার্যক্রম সম্পন্ন

আবুল খায়ের। ফাইল ফটো।

শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার এস.এম. আশরাফুজ্জামানের নির্দেশক্রমে মৃতঃ পুলিশ কনস্টেবল মোঃ আবুল খায়েরের পারিবারিক পেনশন মুঞ্জরীসহ সকল কার্যক্রম এক দিনের মধ্যেই সম্পন্ন করা হয়েছে।
জানাগেছে শরীয়তপুরের সদর কোর্টে কর্মরত মাদারীপুর জেলার সদর উপজেলার বোয়ালিয়া গ্রামের মৃতঃ জুলফিকার আলী চৌধুরীর পুত্র পুলিশ কং/২১৪ মোঃ আবুল খায়ের বিপি নং-(৬২৮০০৩৫৮০৬), তার নিজ বাড়িতে ছুটিতে ভোগরত অবস্থায় মাদারীপুর সদর হাসপাতালে গত ১৬ জুন দুপুর সাড়ে ১২টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। তার জন্ম তারিখ অনুযায়ী মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর ০৪ মাস ২১ দিন। তিনি ১ জানুয়ারী ১৯৮০ সালে বাংলাদেশ পুলিশ বিভাগে যোগদান করে ৩৯ বছর ০৮ মাস ১৪ দিন সততা, দক্ষতা ও নিষ্ঠার সাথে সুষ্ঠুভাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তার মৃত্যুতে শরীয়তপুরের পুলিশ সুপারসহ শরীয়তপুর জেলা পুলিশের সকল সদস্য গভীরভাবে শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।
মৃতঃ পুলিশ কং/ মোঃ আবুল খায়ের মৃত্যুবরণ করার একদিনের মধ্যেই তার পারিবারিক পেনশন প্রস্তাব, বাংলাদেশ পুলিশ পরিবার নিরাপত্তা প্রকল্পের প্রস্তাব, বাংলাদেশ পুলিশ কল্যাণ তহবিলের প্রস্তাব, দাফন-কাফনের বিল, বাংলাদেশ যৌথ বীমা কল্যাণের প্রস্তাব, বাংলাদেশ পুলিশ কমিউনিটি ব্যাংকে জমাকৃত ২৭ হাজার টাকা ফেরত পাওয়ার প্রস্তাব এক দিনের মধ্যেই সকল কর্যক্রম সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে গত ১৭ জুলাই তারিখে সম্পন্ন করে ছয়টি প্রস্তাবের মধ্যে জেলা হিসাব রক্ষণ অফিস শরীয়তপুরে একটি, পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স ঢাকায় চারটি, উপ-পুলিশ কমিশনার অর্থ ডিএমপি ঢাকায় একটি প্রেরন করা হয়েছে। মৃতঃ পুলিশ কনস্টেবলের পরিবারের কল্যানের কথা চিন্তা করে শরীয়তপুর জেলা পুলিশ সুপার এস.এম আশরাফুজ্জামান এর দিক নির্দশনায় সর্বপ্রথম এক দিনের মধ্যেই পেনশন সহ অন্যান্য সকল প্রস্তাবের কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়।
শরীয়তপুর পুলিশ সুপারের এই আন্তরিকতা ও মহানুভবতার জন্য মৃত পুলিশ কনস্টেবলের পরিবারের সদস্যগণ পুলিশ সুপার ও শরীয়তপুর জেলা পুলিশের সকল সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।