শনিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২০শে রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
শনিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

ঈমামের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানে অর্থ তছরুপের অভিযোগ

ঈমামের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানে অর্থ তছরুপের অভিযোগ

নিজ মসজিদের মোয়াজ্জেনকে ঈমান বানিয়ে প্রধানমন্ত্রী দেয়া অনুদানের অর্থ তছরুপের অভিযোগে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বেড়াচিকন্দী বায়তুল আকসা জামে মসজিদ কেন্দ্রের শিক্ষক মাওলানা আবু বক্কর সিদ্দিককে চাকুরী থেকে অব্যহতি দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।
জানাগেছে,বেড়া চিকন্দী বায়তুল আকসা জামে মসজিদের ঈমাম ও গণশিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষক মাওঃআবু বক্কর সিদ্দিক তারই মসজিদের মোয়াজ্জেন আবদুল আজিজকে ঈমাম ও একই মসজিদ কমিটি সহ সভাপতিসাবেক মেম্বার আবদুল জব্বার কোটোয়ারীকে সভাপতি দেখিয়ে পাশ্ববর্তী ডোমসার ইউনিয়নের বেড়াচিকন্দী মাজার জামে মসজিদের নামে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকা তুলে নেয়।
এ বিষয়ে স্থানীয় লোকজন জেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর উপপরিচালক বরাবরে লিখিত অভিযোগ করলে তদন্ত প্রমান সাপেক্ষে দোষী প্রমানিত হওয়ায় তাকে কেন্দ্র শিক্ষকের পদ থেকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে।
এব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষক মাওলা আবুবকর সিদ্দিক বলেন, আমি অনুদানের টাকা আত্মসাৎ করি নাই। আমি এলাকার রাজনৈতিক পরিস্থিতর শিকার। এলাকাবাসীর বুদ্ধি পরামর্শেই ওই মসজিদের জন্য প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত অনুদানের টাকা উত্তোলন করি। এখন আমাদের ভিতরের মসজিদের ঈমাম লিখিত অভিযোগ করায় আমাকে ইসলামিক ফাইন্ডেশন থেকে কারণ দর্শানোর নোটিশ করেছেন। আমি নোটিশের জবাব দিয়েছি। এখন শুনছি আমাকে গণশিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষক পদ থেকে বাদ দেয়া হয়েছে।
শরীয়তপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক রনি বলেন, একজন ঈমামের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টি তদন্ত করি। অভিযোগের বিষয়টি সন্দেহাতিত ভাবে প্রমানিত হওয়ায় জেলা প্রশাসকের পরামর্শ্য মতে অভিযুক্ত ঈমামকে গণশিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষক পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছি। প্রতিষ্ঠানের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা রক্ষার পাশাপাশি মাননীয় প্রধামন্ত্রীর নির্দেশ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আমরা জেলা ব্যাপি কাজ করে যাচ্ছি।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।