বৃহস্পতিবার, ২৬শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ২৬শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

দ্বিতীয় টেষ্টেও করোনা পজেটিভ! ভয়ের কিছুই নাই

নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলছেন সিভিল সার্জন ডা. এস.এম আব্দুল্লাহ আল মুরাদ। ছবি-দৈনিক হুংকার।

————–সিভিল সার্জন
কেউ কোভিড-১৯ করোনায় আক্রান্ত রোগির ডিসচার্জের ক্ষেত্রে ফলো আপ টেষ্টের আর প্রয়োজন নাই এমন কথা হুংকারকে জানিয়েছেন শরীয়তপুরের সিভিল সার্জন ডা. এস.এম আব্দুল্লাহ আল মুরাদ। সোমবার দুপুরে তার কার্যালয়ে বসে এক সাক্ষাৎকারে তিনি আরও বলেন, কেউ করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে আক্রান্ত হলে প্রাথমিক ভাবে তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়। নমুনা পরীক্ষায় অনেক রোগীর করোনা ভাইরাস পজেটিভ আসে। পজেটিভ সেই রোগী ১০ দিন পরে কর্মস্থলে যেতে পারবে যদি কোন জ্বর বা কাশি না থাকে। যদি জ্বর ও কাশি থাকে তাহলে তাকে ১৪ দিন অপেক্ষা করতে হবে। ১৪ দিন পরেও একটা মানুষের দেহে ৬০ দিন পর্যন্ত করোনা ভাইরাস অবস্থান করতে পারে। সেই ভাইরাস অন্য কারোর জন্য ক্ষতিকর না।
করোনার বৈজ্ঞানিক পরীক্ষায় বিভিন্ন সময় ভিন্ন ভিন্ন তথ্য বেরিয়ে আসছে। করোনা বিশেষজ্ঞ চীনা প্রতিনিধিদল বলেছে করোনা আক্রান্ত রোগীর কোয়ারিন্টিনের শেষ ৩ দিন যদি কোন হাঁচি-কাশি না থাকে তাহলে সে কাজে যোগদান করতে পারবে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে সর্বশেষ রোববার নির্দেশনা আসছে করোনা আক্রান্ত কোন রোগীকে ফলো আপ কোন নমুনা পরীক্ষা ছাড়াই ডিসচার্জ করা যাবে। ডা. সৈয়দা শাহিনুর নাজিয়ার দ্বিতীয়বার করোনা পজেটিভ এসেছে। সে ১৮ দিন পরে তার কর্মস্থলে যোগদান করেছে। এখন চেম্বারেও রোগী দেখছে সে।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।