শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২০ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ রজব ১৪৪৪ হিজরি
শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

শরীয়তপুরে কলেজ ছাত্রকে কুপিয়ে জখম

সন্ত্রাসীদের হামলার শিকার মাহেদুল ইসলাম নিভ্রম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুর সরকারী কলেজের সম্মান শ্রেণির ছাত্র মাহেদুল ইসলাম নিভ্রকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। ৯ জানুয়ারী বিকেল ৫টায় শরীয়তপুর পৌর ঈদগাঁ মাঠে এই ঘটনা ঘটে। নিভ্রমকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এই বিষয়ে পালং মডেল থানায় অভিযোগ করেছেন আহত নিভ্র এর পিতা আব্দুল বাসেদ। অপরাধীদের ধরতে অভিযানে নেমেছে পালং থানা পুলিশ।
আহত মাহেদুল ইসলাম নিভ্র জানায়, সে শরীয়তপুর পৌর ঈদগাঁ মাঠে একা বসে ছিল। জুনিয়র শ্রেণির শিমুল, মিনি, রিফাত, সোহান, নাজমুল, রাজন, ছাব্বিরসহ ২৫-৩০ জনের এতটি দল চাপাতি, ছুরিসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার উপর আক্রমন চালায়। নিভ্রকে গুরুতর আহত করে তারা চলে যায়। পরে স্থানীয়রা নিভ্রকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।
আব্দুল বাসেদ জানায়, বিকেল ৫টার সময় ঘটনা ঘটেছে। ৪ ঘন্টা পরে সে জানতে পেরেছে ছেলেকে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে। হাসপাতালে গিয়ে দেখি ছেলের বিভিন্ন স্থানে কোপের দাগ। এই বিষয়ে আমি থানায় অভিযোগ করেছি। অপরাধীদের আইনের আওতায় আনার জন্য পুলিশ প্রশাসনের সুদৃষ্ঠি কামনা করছি।
পালং মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আক্তার হোসেন বলেন, কলেজ ছাত্রকে কুপিয়ে জখম করার সাথে যারা জড়িত তাদের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। অপরাধীরা পালিয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।