শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২০ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ রজব ১৪৪৪ হিজরি
শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

শেখ কামাল বেঁচে থাকলে দেশ আরো এগিয়ে যেতো: জেলা প্রশাসক

শরীয়তপুর বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক মুন্সী আব্দুর রউফ স্টেডিয়ামে শেখ কামাল দ্বিতীয় বাংলাদেশ যুব গেমস-২০২৩ আন্ত:উপজেলা প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন করছেন অতিথিবৃন্দ। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শিশু-কিশোর ও তরুণদের ক্রীড়ায় উদ্বুদ্ধ করতে বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের আয়োজনে জেলা প্রশাসন ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার ব্যবস্থাপনায় রোববার (৮ জানুয়ারি) বেলা ১২টায় বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক মুন্সী আব্দুর রউফ স্টেডিয়ামে শেখ কামাল দ্বিতীয় বাংলাদেশ যুব গেমস-২০২৩ আন্ত:উপজেলা প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।
জেলা প্রশাসক মো: পারভেজ হাসানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের সাবেক মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) ফখরুদ্দিন হায়দার, জেলা পরিষদ প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো: শামীম হোসনে রেজা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু সাঈদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, শরীয়তপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জ্যোতি বিকাশ চন্দ্র, ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন, জাজিরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল হাসান সোহেল, নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ রাশেদুজ্জামান, ডামুড্যা উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাছিবা খান, গোসাইরহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার কাফি বীন কবির, ডামুড্যা পৌরসভা মেয়র রেজাইল করিম রাজা, জাজিরা পৌরসভা মেয়র মোঃ ইদ্রিস মাদবরসহ সহ জেলার ৬ উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদকগণ উপস্থিত ছিলেন।
তিন দিনব্যাপী প্রতিযোগিতায় ফুটবল, কাবাডি, দাবা, সাতার, কারাতে, ব্যাডমিন্টন ও এ্যাথলেটিকস সহ ২৪ টি ইভেন্টে জেলার অনুর্ধ ১৭ ছয় শতাধিক প্রতিযোগি অংশগ্রহণ করছে। প্রতিযোগিতা শেষ হবে আগামী ১০ জানুয়ারি।
সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মোঃ পারভেজ হাসান বলেন, ‘বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, সাথে এগিয়ে যাচ্ছে আমাদের ক্রীড়াঙ্গন। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের খুঁজে বের করাই এ আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য এবং নতুন প্রতিভার সমন্বয়ে আমরা জাতীয় দলগুলোকে সমৃদ্ধ করতে পারব।’
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র শেখ কামাল দেশের অন্যতম ক্রীড়া সংগঠক ও তারুণ্যের প্রতিক ছিল উল্লেখ করে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘তাঁর যৌবনদীপ্ত ক্রীড়াশৈলী দেশের তরুণদের প্রতিনিয়ত অনুপ্রাণিত করে। এ প্রজন্মের তরুণরাও খেলাধুলার বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাদের প্রতিভা ও ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শন করে আগামীতে হয়ে উঠবে অনন্য সাধারণ ক্রীড়াবিদ। এ কারণেই শেখ কামাল দ্বিতীয় বাংলাদেশ যুব গেমস-২০২৩ এর লোগোতে রয়েছে তারুণ্যের প্রতিক শেখ কামালের প্রতিকৃতি এবং মাসকটে ব্যবহার করা হয়েছে বাবুই পাখি, যা প্রাণচঞ্চলতার প্রতিক এবং শত প্রতিকূলতার মাঝেও সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা এঁর নেতৃত্বে দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে শেখ কামাল বেঁচে থাকলে ক্রীড়াসহ অন্যান্য ক্ষেত্রেও সমান তালে দেশ এগিয়ে যেতো।

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।