শুক্রবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৯ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
শুক্রবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সাংবাদিক নির্যাতনকারী জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলীর প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন

সাংবাদিক নির্যাতনকারী জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলীর প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন
সাংবাদিক নির্যাতনকারী জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলীর প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন। ছবি-দৈনিক হুংকার

সাংবাদিক নির্যাতনকারী শরীয়তপুরের জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী খন্দকার এরশাদুজ্জামান মৃদুলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও বিচারের দাবীতে প্রধানমন্ত্রীর বরাবরে স্মারকলিপি পেশ ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে জেলার কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।
২১ জুন রোববার বেলা ১২টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে সমবেত হয়ে প্রায় ঘন্টা ব্যাপি মানববন্ধন করে। এর পর জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেন। এসময় বক্তব্য রাখেন শরীয়তপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি অনল কুমার দে, সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ তালুকদার, ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি রোকনুজ্জামান পারভেজ, সাধারণ সম্পাদক শহীদুজ্জামান খান, প্রথম আলোর প্রতিনিধি সত্যজিত ঘোষ, চ্যানেল আই প্রতিনিধি এমএম মজিবুর রহমান ও মানবজমিন প্রতিনিধি শেখ খলিলুর রহমান। এর পূর্বে জেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে বেলা ১১টা থেকে সমবেত হয়ে ১২টা পর্যন্ত ঘন্টা ব্যাপি শরীয়তপুরের জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধদিপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলীর বিচারের দাবী জানিয়ে মানববন্ধন করে।
উল্লেখ্য গত বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার দিকে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী আসাদুজ্জামান মৃদুলের অফিস কক্ষে লাঞ্ছনার শিকার হন শরীয়তপুর ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি, এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজ এবং বাংলাদেশ প্রতিদিনের জেলা প্রতিনিধি রোকনুজ্জামান পারভেজ ও শরীয়তপুর ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক, গাজী টিভির প্রতিনিধি মো. মানিক মোল্যা।
সাংবাদিকরা নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়ের দুইতলায় উঠে নির্বাহী প্রকৌশলীর অফিস কক্ষে ঢুকেই সিগারেট পানরত অবস্থায় দেখে ও গাঁজার গন্ধ পায় বলে দাবী করেন। এ সময় গাজী টিভির সাংবাদিক মানিক মোল্যা ওই মাদক সেবনের দৃশ্য ক্যামেরায় ধারণ করার চেষ্টা করে। তখন নির্বাহী প্রকৌশলী এরাশাদুজ্জামান মৃদুল উত্তেজিত হয়ে আমাদের মারপিট করার চেষ্টা করে এবং নিচের গেইট আটকে দেন। এ ঘটনায় রোকনুজ্জামান বাদী হয়ে পালং মডেল থানায় মামলা করার জন্য লিখিত অভিযোগ করেছেন।
সভায় বক্তারা সাংবাদিক লাঞ্ছনাকারীর বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে দ্রুত বিচার দাবী করেন। তারা বলেন আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বরাবরে আবেদন জানিয়েছি। তিনি মাদক সস্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স অবস্থানে আছেন। তাই আমরা বিশ্বাস করি দোষী যত বড় শক্তিশালীই হউক আমরা ন্যায় বিচার পাবো।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।