রবিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ রজব ১৪৪৪ হিজরি
রবিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

শরীয়তপুরে হত্যা মামলায় ১২ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

শরীয়তপুরে হত্যা মামলায় ১২ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড
শরীয়তপুরে সামাদ হত্যা মামলার রায় শেষে আসামীদের কারাগারে নেওয়া হচ্ছে। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার কৃষক সামাদ মাদবর হত্যা মামলায় ১২ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন শরীয়তপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালত। সোমবার বিকেলে বিচারক শেখ মফিজুর রহমান আসামীদের উপস্থিতিতে এই আদেশ দেন। একই সঙ্গে প্রত্যেক আসামীকে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ডও দিয়েছেন। হত্যাকান্ডের সাত বছর পর এই রায় পেয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন বাদী পক্ষ।
দণ্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন, আজিজুল মাদবর, রফিকুল মৃধা, লিটন মাদবর, মান্নান মৃধা, আ: আলিম মাদবর, মফিজ মৃধা, তারন ফরাজী, নুরুল হক মাদবর, জুলহাস মাদবর, আলাউদ্দিন ফকির, বারেক মাদবর ও মনির মাদবর। তাদের সকলের বাড়ি জাজিরা উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের চরখোরাতলা গ্রামে।
২০১৫ সালের ১ অক্টোবর একই এলাকার সামাদ মাদবরকে কে বা কারা হত্যা করে ওই এলাকার ফসলি জমিতে ফেলে রেখে যায়। এঘটনায় জাজিরা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। সিআইডির তদন্তে উদঘাটিত হয় আসামী আজিজুল মাদবরসহ ১২ জন মিলে পূর্বের অন্য একটি হত্যা মামলার বাদী ও সাক্ষিদের ফাঁসাতে নিজ দলের সমর্থক সামাদ মাদবরকে কুপিয়ে হত্যা করেন।
এ ঘটনায় নিহতের ছেলে শাহজালাল মাদবর বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামী করে জাজিরা থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। সাত বছর পরে সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে জেলা ও দায়রা জজ আদালত এ রায় প্রদান করেন। বিচারকের রায় তারা মেনে নিয়েছেন। তবে কয়েকজনের মৃত্যুদন্ড হওয়া উচিত ছিল বলে তিনি দাবী করেন।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি মির্জা হজরত আলী বলেন, এরকম দৃষ্টান্তমূলক সাঁজা হলে এই ধরণের বর্বোরচিত ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না। আমরা রাষ্ট্রপক্ষ এই রায়ে সন্তুষ্ট।
আসামী পক্ষের আইনজীবী মো: শাহ আলম বলেন, আমরা আসামী পক্ষ ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়ছি। আসামী পক্ষ মহামান্য হাইকোর্টে আপিল করবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।