শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২০ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ রজব ১৪৪৪ হিজরি
শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

শরীয়তপুরে পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্সের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন

শরীয়তপুরে পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্সের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন
বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখছেন পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বি এম ইউসুফ আলী। ছবি-দৈনিক হুংকার।

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ৪৭তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস-২০২২ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
সোমবার (১৫ আগস্ট) সকাল ১০ টায় শরীয়তপুর সদর উপজেলা নিকটস্থ দুবাই প্লাজার তৃতীয় তলায় পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের কার্যালয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ৪৭তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে শরীয়তপুর জেলার পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেড এর কর্মরত প্রায় তিন শতাধিক কর্মকর্তা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন শরীয়তপুরের কৃতি সন্তান, পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও, প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স ফোরাম ও কার্যনির্বাহী সদস্য, বাংলাদেশ ইন্সুরান্স অ্যাসোসিয়েশন, বি এম ইউসুফ আলী।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কোম্পানির অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিএম শওকত আলী, কোম্পানির উর্ধ্বতন উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মোতাহার হোসেন, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ কামাল হোসেন মহশিন, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ খলিলুর রহমান সিকদার। কোম্পানির জেলা সমন্বয়কারী সৈয়দ জাকারিয়ার সভাপতিত্বে এসময় আরো বক্তব্য রাখেন নির্বাহী পরিচালক মুফতি দিদারুল ইসলাম, নির্বাহী পরিচালক মোঃ মোখলেছুর রহমান, মাদারীপুর জেলা সমন্বয়কারী মোঃ হাবিবুর রহমান, প্রকল্প ইনচার্জ সৈয়দ আবুল খায়ের, প্রকল্প ইনচার্জ মোঃ কবির হোসেন হাওলাদার, জিএম (উন্নয়ন) মোঃ সোহানুর রহমান, সৈয়দ নজরুল ইসলাম, ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (উন্নয়ন) ও সার্ভিস সেল ইনচার্জ মোহাম্মদ নান্নু মৃধাসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে বি এম ইউসুফ আলী বলেন, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ডাকে সাড়া দিয়ে দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী সংগ্রামে ৩০ লক্ষ প্রাণের বিনিময়ে ও ২ লক্ষ মা বোনের ইজ্জত ও সমভ্রমের বিনিময়ে আজকে আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছি এবং ছোট্ট একটি লাল সবুজ পতাকা অর্জন করেছি। আর এই লাল সবুজ পতাকা আমাদেরকে বিশ্বের কাছে পরিচিত করে দিয়েছে।
এই লাল সবুজ পতাকা চিহ্নিত করে দিয়েছে সারা বিশ্বে রাষ্ট্রের কাছে বাংলাদেশ নামক স্বাধীন রাষ্ট্র আছে। অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে বলছি যার নেতৃত্বে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি তাকেই এদেশের ঘাতকরা বাঁচতে দেয়নি। ১৯৭৫ সালের ১৫ ই আগস্ট কালো ভয়াল রাত্রে বাংলাদেশের স্বাধীনতা বিরোধী পক্ষ ঘাতক-দালালরা মাসুম বাচ্চা রাসেলসহ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবারকে নির্মমভাবে বুলেটের আঘাতে হত্যা করে। ওই হত্যাকারী ঘাতকদের ধিক্কার জানাই।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।