শনিবার, ২ জুলাই ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ জিলহজ ১৪৪৩ হিজরি
শনিবার, ২ জুলাই ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

‘বিশ্ব নবীর অপমান সইবেনা আর মুসলমান’ শ্লোগানে শরীয়তপুর কম্পিত

Auto Draft
বিশ্ব নবীর অপমান এর প্রতিবাদে শরীয়তপুরে বিক্ষোভ মিছিল। ছবি-দৈনিক হুংকার।

‘বিশ্ব নবীর অপমান সইবেনা আর মুসলমান’ শ্লোগানে শরীয়তপুরে জেগে উঠেছে ওলামা পরিষদ ও তৌহিদী জনতা। করেছে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ। প্রতিবাদ জানিয়েছে বিশ্বনবী ও তার সহধর্মীনিকে অবমানাকারীদের কুশপুত্তলিকা জ্বালিয়ে। ৬ দফা দাবী ছুঁড়ে দেয়া হয়েছে সরকারের প্রতি।
৯ জুন বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় শরীয়তপুর জেলা শহরের পালং উত্তর বাজার জামে মসজিদ থেকে হাজার হাজার তৌহিদী জনতার অংশগ্রহণে একটি প্রতিবাদ মিছিল বের হয়ে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশ থেকে ওলামা পরিষদের সভাপতি মাওলানা আবু ববকর তার বক্তব্যে ৬ দফা দাবী উত্থাপন করেন। দাবী সমূহ নুপুর শর্মা ও নবিন কুমার জিন্দানালের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, ভারতের রাষ্ট্র প্রধান নরেন্দ্র মোদির নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থণা, ভবিষ্যতে ভারত থেকে এধরণের আর কোন কর্মকান্ড যেন না হয়, ভারতের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে প্রতিক্রিয়া জানানো, সংসদে নিন্দা প্রস্তাব পাশ ও ভারতীয় পন্য বর্জণ করা।
সমাবেশে নেতৃত্ব প্রদান করেছেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মুইনুদ্দীন কাশেমী, সহ-সভাপতি মাওলানা সাব্বির আহমেদ, মাওলানা শহিদুল্লাহ খন্দকার, মাওলানা ইদ্রিস কাশেমী, উপদেষ্ঠা মাওলানা শফিউল্লাহ খান, হাফেজ কেরামত আলী, শরীয়তপুর কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মিজানুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ, মুফতী খবিরউদ্দিন সহ-সাধারণ সম্পাদক এসএম মুসলিম উদ্দিন, সদস্য হাফেজ দবির হোসেন শেখ প্রমূখ।
সমাবেশ শেষে নুপুর শর্মা ও নবিন কুমার জিন্দানালের কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।