সোমবার, ২রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি
সোমবার, ২রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পদ্মা সেতুতে বসলো ৩১তম স্প্যান, বাকি থাকল ১০টি

পদ্মা সেতুতে বসলো ৩১তম স্প্যান, বাকি থাকল ১০টি

পদ্মা সেতুর ২৫ ও ২৬ নম্বর পিলারের ওপর বসানো হলো ৩১ তম স্প্যান। এই স্প্যানটি বসানোর ফলে ৪.৬৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান হয়েছে সেতুটির। ৪১টি স্প্যানের মধ্যে এখন আরো ১০টি স্প্যান বসতে বাকি রইলো।

বুধবার (১০ মে) পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বার্তা২৪.কমকে স্প্যান বসানোর তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বিকাল ৪:০২ মিনিটে ৩১তম স্প্যান বসানোর কাজ শেষ হয়।

এদিকে, ৩১তম স্প্যান বসানোর মধ্যে দিয়ে জাজিরার অংশে আর কোন স্প্যান বসানো বাকি থাকবে না। মাওয়া অংশে স্প্যান বসানো বাকি থাকছে ১০টি। সেগুলো বসানো সম্পন্ন হলে সেতুর পূর্ণ অংশ ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান হবে।
পুরো সেতুতে মোট পিলারের সংখ্যা ৪২টি
এদিকে প্রকল্প সুত্রে জানা যায়, ‘পুরো সেতুতে মোট পিলারের সংখ্যা ৪২টি। সবগুলো পিলারের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। একটি থেকে আরেকটি পিলারের দূরত্ব ১৫০ মিটার। এই দূরত্বের লম্বা ইস্পাতের কাঠামো বা স্প্যান জোড়া দিয়েই সেতু নির্মিত হচ্ছে। ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান বসানো হবে। স্প্যানের অংশগুলো চীন থেকে তৈরি করে বাংলাদেশে আনা হয়।
তাছাড়া,পুরো সেতুতে ২ হাজার ৯১৭টি রোডওয়ে স্ল্যাব বসানো হবে। আর রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হবে ২ হাজার ৯৫৯টি।
মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদীশাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন।
দ্বিতল পদ্মা সেতু হচ্ছে মুন্সিগঞ্জের মাওয়া ও শরীয়তপুরের জাজিরার মধ্যে। মূল সেতুর দৈর্ঘ্য ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার। যার মধ্যে আজ দৃশ্যমান হলো ৪.৬৫ কিলোমিটার।
স্প্যানটি বসানোর ফলে ৪.৬৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান হয়েছে সেতুটির
২০১৪ সালের ডিসেম্বরে শুরু হয়েছিল পদ্মাসেতুর নির্মাণ কাজ।আগামী বছরে শেষে হতে পারে পদ্মা সেতুর কাজ। তারপরেই পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে যান চলাচল করবে বলে জানিয়েছে সেতু কর্তৃপক্ষ।
উল্লেখ এর আগে, চলতি বছরের ১৪ জানুয়ারী ৩২ এবং ৩৩ নাম্বার পিলারের উপর বসেছে ২১ তম স্প্যান এবং ২৩ জানুয়ারি প্রান্তের ৫ এবং ৬ নাম্বার পিলারের উপর বসেছে ২২ তম স্প্যান এবং ফেব্রুয়ারি মাসের ২ তারিখে বসেছে ২৩ তম স্প্যান, ১১ ফেব্রুয়ারি বসেছে ২৪ তম স্প্যান এবং ২১ ফেব্রুয়ারি বসেছে ২৫ তম স্প্যান।১০ মার্চ বসেছে ২৬ তম স্প্যান এবং ২৮ মার্চ বসেছে ২৭ তম স্প্যান। ১১ এপ্রিল বসেছে ২৮ তম স্প্যান। ৪ মে বসেছে ২৯ তম এবং ৩০ মে বসেছে ৩০ স্প্যান।

পদ্মা সেতুতে বসলো ৩১তম স্প্যান,বাকি থাকল ১০টি

ইলিয়াছ মাহমুদ

পদ্মা সেতুর ২৫ ও ২৬ নম্বর পিলারের ওপর বসানো হলো ৩১ তম স্প্যান। এই স্প্যানটি বসানোর ফলে ৪.৬৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান হয়েছে সেতুটির। ৪১টি স্প্যানের মধ্যে এখন আরো ১০টি স্প্যান বসতে বাকি রইলো।

বুধবার (১০ মে) পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বার্তা২৪.কমকে স্প্যান বসানোর তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বিকাল ৪:০২ মিনিটে ৩১তম স্প্যান বসানোর কাজ শেষ হয়।

এদিকে, ৩১তম স্প্যান বসানোর মধ্যে দিয়ে জাজিরার অংশে আর কোন স্প্যান বসানো বাকি থাকবে না। মাওয়া অংশে স্প্যান বসানো বাকি থাকছে ১০টি। সেগুলো বসানো সম্পন্ন হলে সেতুর পূর্ণ অংশ ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান হবে।
পুরো সেতুতে মোট পিলারের সংখ্যা ৪২টি
এদিকে প্রকল্প সুত্রে জানা যায়, ‘পুরো সেতুতে মোট পিলারের সংখ্যা ৪২টি। সবগুলো পিলারের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। একটি থেকে আরেকটি পিলারের দূরত্ব ১৫০ মিটার। এই দূরত্বের লম্বা ইস্পাতের কাঠামো বা স্প্যান জোড়া দিয়েই সেতু নির্মিত হচ্ছে। ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান বসানো হবে। স্প্যানের অংশগুলো চীন থেকে তৈরি করে বাংলাদেশে আনা হয়।
তাছাড়া,পুরো সেতুতে ২ হাজার ৯১৭টি রোডওয়ে স্ল্যাব বসানো হবে। আর রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হবে ২ হাজার ৯৫৯টি।
মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদীশাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন।
দ্বিতল পদ্মা সেতু হচ্ছে মুন্সিগঞ্জের মাওয়া ও শরীয়তপুরের জাজিরার মধ্যে। মূল সেতুর দৈর্ঘ্য ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার। যার মধ্যে আজ দৃশ্যমান হলো ৪.৬৫ কিলোমিটার।
স্প্যানটি বসানোর ফলে ৪.৬৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান হয়েছে সেতুটির
২০১৪ সালের ডিসেম্বরে শুরু হয়েছিল পদ্মাসেতুর নির্মাণ কাজ।আগামী বছরে শেষে হতে পারে পদ্মা সেতুর কাজ। তারপরেই পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে যান চলাচল করবে বলে জানিয়েছে সেতু কর্তৃপক্ষ।
উল্লেখ এর আগে, চলতি বছরের ১৪ জানুয়ারী ৩২ এবং ৩৩ নাম্বার পিলারের উপর বসেছে ২১ তম স্প্যান এবং ২৩ জানুয়ারি প্রান্তের ৫ এবং ৬ নাম্বার পিলারের উপর বসেছে ২২ তম স্প্যান এবং ফেব্রুয়ারি মাসের ২ তারিখে বসেছে ২৩ তম স্প্যান, ১১ ফেব্রুয়ারি বসেছে ২৪ তম স্প্যান এবং ২১ ফেব্রুয়ারি বসেছে ২৫ তম স্প্যান।১০ মার্চ বসেছে ২৬ তম স্প্যান এবং ২৮ মার্চ বসেছে ২৭ তম স্প্যান। ১১ এপ্রিল বসেছে ২৮ তম স্প্যান। ৪ মে বসেছে ২৯ তম এবং ৩০ মে বসেছে ৩০ স্প্যান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।