বৃহস্পতিবার, ১৩ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ১৩ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নির্যাতিত হিন্দু পরিবারকে দেখতে ভূমখাড়া গেলেন জাতীয় হিন্দু মহাজোটের নেতৃবৃন্দ

নির্যাতিত হিন্দু পরিবারকে দেখতে ভূমখাড়া গেলেন জাতীয় হিন্দু মহাজোটের নেতৃবৃন্দ
অলোক মন্ডলকে দেখতে হাসপাতালে হিন্দু মহাজোটের নেতৃবৃন্দ। ছবি-দৈনিক হুংকার।

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নির্যাতিত হিন্দু পরিবারকে দেখতে ভূমখাড়া গেলেন জাতীয় হিন্দু মহাজোট শরীয়তপুর জেলা শাখা ও নড়িয়া উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ। ২৩ এপ্রিল শুক্রবার দুপুর ১২টায় প্রথমে নেতৃবৃন্দ নড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভিকটিমের সাথে দেখা করেন এবং পরে ভূমখাড়া ইউনিয়নের নিতিরা গ্রামে যায় তারা। এরপর নেতৃবৃন্দ চাকধ মন্ডল বাড়ি মহাদেব মন্দির পরিদর্শণ করেন।
জানাগেছে, সংখ্যালঘু হিন্দু পরিবারের অলোক মন্ডল (৩৬) নামে এক যুবক বাজারে রওয়ানা হয়। জমি সংক্রান্ত বিরোধে পথিমধ্যে নির্জন রাস্তায় দিপু পেদা, মাছুম পেদা ও রফিক পেদা ওই যুবককে মধ্যযুগীয় কায়দায় ইট দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। যুবকের ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা উপস্থিত হলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। চাকধ নিতিরা গ্রামে ১৯ এপ্রিল সোমবার সকালে এই ঘটনা ঘটে।
জাতীয় হিন্দু মহাজোট শরীয়তপুর জেলা শাখার সদস্য এডভোকেট অমিত ঘটক চৌধুরীর নেতৃত্বে-কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শরীয়তপুর জেলা শাখার সদস্য সচিব ডাঃ হেমন্ত কুমার দাস, জেলা যুগ্ম আহবায়ক এডভোকেট রাধা রানী বিশ্বাস, সদস্য এডভোকেট টুম্পা রানী রাউথ, এডভোকেট অনুপ বসু, নড়িয়া উপজেলা শাখার সভাপতি রতন কুমার দে, সহ সভাপতি সুশান্ত দাস, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোপাল দত্ত, সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামল বাছাড় ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন। এই সময় সংগঠনের পক্ষ থেকে হামলার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবী জানান সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এই সময় জয়রাম বনিক, রাজন দাস, এডভোকেট রাজকুমার, অপু চন্দ্র চন্দ, অটল পাল প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।