মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি
মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নড়িয়ায় বিনামূল্যে চিকিৎসা ক্যাম্প পরিদর্শণ করেন পানি সম্পদ উপমন্ত্রী শামীম

Auto Draft
নড়িয়ায় বিনামূল্যে চিকিৎসা ক্যাম্প পরিদর্শণকালে রোগীদের মাঝে ইফতারের জন্য নগদ টাকা প্রদান করছেন পানি সম্পদ উপমন্ত্রী। ছবি-দৈনিক হুংকার।

সারাবিশ্বে করোনা মহামারি আকার ধারণ করেছে। করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষকে জীবন দিতে হচ্ছে। বাংলাদেশেও করোনা মহামারি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। মানুষের জীবনযাত্রার মান নাখাল হয়ে পড়ছে। সেই দূর্যোগময় সময় কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস মহামারি নিয়ন্ত্রণে নড়িয়া ও সখিপুরের মানুষের জন্য ফ্রি স্বাস্থ্যসেবা ও বিনামূল্যে ঔষধের ব্যবস্থা করেছেন শরীয়তপুর-২ আসনের এমপি ও পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম। ‘ডাক্তারের কাছে রোগী নয়, রোগীর কাছে ডাক্তার’ শ্লোগানে নড়িয়া ও সখিপুরে প্রতিটি ইউনিয়নে পৌঁছে যাচ্ছে ভ্রাম্যমান মেডিকেলের এই ফ্রি স্বাস্থ্যসেবা টিম। এই সময় বিনামূল্যে ঔষুধও পৌঁছে দেয়া হচ্ছে রোগীর হাতে। ২২ এপ্রির বৃহস্পতিবার নড়িয়া পৌরসভার বৈশাখী পাড়া এলাকায় চিকিৎসাসেবা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন উপমন্ত্রী। এই সময় তিনি চিকিৎসা নিতে আসা রোগেীদের ঔষধ ও ইফতারের জন্য নগদ টাকা বিতরণ করেন।
মেডিকেল টিমের দায়িত্বে রয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. মোবারক হোসেন সুজন ও ডা. শওকত আলী। এই টিমে আরও রয়েছেন ২ জন সেবিকা ও ৪ জন স্বাস্থ্য সহকারী। সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত ২ শতাধিক রোগীকে বিনামূলে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করেন এই টিম।
এর পূর্বে তিনি জাজিরা ও নড়িয়া উপজেলার ৯ কিলোমিটার পদ্মা নদীর ডান তীর রক্ষা প্রকল্পের চলমান কাজের অগ্রগতি পরিদর্শণ করেন। প্রকল্পের সময়সীমার পূর্বেই প্রকল্পটির কাজ সম্পূর্ণ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। এসময় তিনি বলেন, সারা দেশের সকল ঝুকিপূর্ণ নদী চিহ্নিত করে ভাঙন রোধে কাজ করছে সরকার।
২২ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকালে প্রকল্প পরিদর্শণ কালে পানি উন্নয়ন বোডের ফরিদপুর অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী আবদুল হেকিম, নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়ন্তী রূপা রায়, শরীয়তপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান হাবিবসহ সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীগন এবং স্থানীয় নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
প্রকল্প পরিদর্শণ শেষে পানি সম্পদ উপমমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম এমপি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের কৃষকের মুখে হাসি দেখতে চায়। প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশে হাওর অঞ্চলের কৃষকের মুখে হাসি ফুটাতে পানি সম্পদ মন্ত্রনালয় ও পানি উন্নয়ন বোর্ড পূর্ব থেকেই কাজ করে যাচ্ছে। ফলে এ বছর হাওর অঞ্চলের কৃষকরা তাদের কষ্টার্জিত ধান ঘরে তুলতে শুরু করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।