শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২০ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ রজব ১৪৪৪ হিজরি
শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

ধর্ষনের বিরুদ্ধে নড়িয়ায় ছাত্রলীগের আলোক প্রজ্জ্বালন কর্মসূচি

বুধবার সন্ধায় নড়িয়া উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে ধর্ষন বিরোধী আলোক প্রজ্জ্বালন কর্মসূচি পালন করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা, ছবিঃ দৈনিক হুংকার

দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্ষণ ও নারীর প্রতি সহিংসতার প্রতিবাদে ও এর স্থায়ী অবসানের দাবিতে শরীয়তপুরের নড়িয়ায় আলোক প্রজ্জ্বালন কর্মসূচি পালন করেছে নড়িয়া উপজেলা ছাত্রলীগ ও নড়িয়া সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগ।

কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বুধবার সন্ধ্যায় নড়িয়া উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে এ কর্মসূচি পালিত হয়। কর্মসূচিতে প্রায় ৫ শতাধিক ছাত্রলীগ নেতাকর্মী অংশ নেয়।

এর আগে উপজেলা চত্তর থেকে মোমবাতি হাতে একটি পদযাত্রা বের করা হয়। পদযাত্রাটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা আসাদুজ্জামান বিল্পব, নড়িয়া সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের স্কুল ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মোঃ ইমরান খালাসি, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা নয়ন সিকদার, নূর এ আলম, শেখ রিয়াদ, শিমুল হাওলাদার, নেছার শেখ, স্বপন দেওয়ান, আমিনুল ইসলাম খান, রফিকুল ইসলাম আকাশ, বিল্লাল হোসেন বিজয়, জিল্লুর রহমান, নজরুল ইসলাম লাকুরিয়া, নড়িয়া সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগ নেতা রফিক মল্লিক, আল আমীন বেপারী, সিহাব নির্জন, সোহেল আরমান, বিএম সম্রাট, মেহেদী হাসান আসিফ, অনিক শুত্রধর প্রমুখ।

এসময় উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা আসাদুজ্জামান বিপ্লব বলেন, যারা ধর্ষণ ও নারী নিপিড়ন করে তাদের কোন দলীয় পরিচয় নেই। সকল ধর্ষককে দ্রুত আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হোক। যারা ধর্ষক বা এর সাথে যারা সংশ্লিষ্ট তাদের যেন দ্রুত আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড নিশ্চিত করা হয়। এর ফলে যারা এই ধরনের মনমানসিকতা লালন করে তারা ভয় পাবে। একইসাথে ধর্ষককে যাতে সমাজের নিকৃষ্ট প্রাণী হিসেবে চিহ্নিত করতে পারি। পারিবারিকভাবে হোক বা সামাজিকভাবে হোক আমরা যাতে বয়কট করতে পারি। তাহলে তারা ভয় পাবে। আমাদের শিক্ষার্থী বোনরা বা মা-বোনেরা যদি কোনোভাবে রাস্তায় তথাকথিত দুষ্টু, যারা ইভটিজিং করে তাহলে তারা যেন আমাদের জানায়। আমরা সেই ধর্ষক বা ইভটিজারদের ধরে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে তুলে দেব।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।