মঙ্গলবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
মঙ্গলবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

মায়ের মুক্তি ও ষড়যন্ত্রকারীদের বিচারের দাবিতে সন্তানদের মানববন্ধন

মায়ের মুক্তি ও ষড়যন্ত্রকারীদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন। ছবি-দৈনিক হুংকার।

ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলায় নূরজাহান বেগম কারাগারে, তার স্বামী ইয়াছিন ছৈয়াল গ্রেফতার এড়াতে পলাতক থাকায় নিরাপত্তাহীনতায় আছে তাদের পাঁচ সন্তান। তাই মায়ের মুক্তি ও ষড়যন্ত্রকারীদের বিচারের দাবিতে নূরজাহান বেগমের ৫ সন্তান সোমবার বেলা ১১টার শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসক বরাবর স্বারকলিপি প্রদান করেন অসহায় সন্তানেরা।
মানববন্ধন থেকে নুরজাহানের বড় মেয়ে শারমিন আক্তার বলেন, শিশুদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী ছালাম বেপারী ও তারা স্ত্রী শিউলী বেগমরা আমাদের মারধর করে। আবার আমার মা-বাবার বিরুদ্ধে মিথ্যা ষড়যন্ত্র করে মামলাও করে শিউলী। সেই মিথ্যা মামলায় মাকে আটক করে কারাগারে পাঠায়। মা বিনা দোষে হাজত খাটছেন। বাবা পালিয়ে বেড়াচ্ছে। মিথ্যা মামলার বাদি পক্ষ আমাদের প্রাণ নাশের হুমকি দিচ্ছে। ভয়ে আমরা ঘর থেকে বের হতে পারছি না। ছোট ছোট ভাই বোনদের নিয়ে ঘর বন্দি আছি। আমাদের মা বিনা অপরাধে জেল হাজতে। মায়ের মুক্তি কামনা করছি এবং ষড়যন্ত্রকারীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।
মানববন্ধনে নূরজাহান বেগমের মেয়ে শারমিন আক্তার, সাথী আক্তার, বিথী আক্তার ও ছেলে মুজাম্মেল এবং মজনুসহ ভূমখাড়া ইউনিয়বাসী নাসিমা বেগম, রোকেয়া বেগম, রবিন, সেন্টু প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন ।
উল্লেখ্য নড়িয়া উপজেলার ভূমখাড়া গ্রামের বাসিন্দা নূরজাহান বেগমের স্বামী ইয়াছিন ছৈয়াল চট্টগ্রামে ফেরি করে কাপড় বিক্রি করেন। তার সন্তানদের সাথে প্রতিবেশী ছালাম বেপারীর ছেলের সাথে ঝগড়া হয়। এই সময় সালাম বেপারীর ছেলে আহাদ মাথায় আঘাত পায়। ওই ঘটনার জের ধরে ১৮দিন পরে মামলা করে ইয়াছিন ছৈয়ালের স্ত্রী নূরজাহানকে পুলিশ দিয়ে ধরিয় দেয়।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।