শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২০ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ রজব ১৪৪৪ হিজরি
শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

মৎস্য সম্পদ ধ্বংসকারী ক্ষতিকর অবৈধ জাল অপসারণে বিশেষ কম্ভিং অপারেশন

নদী থেকে অবৈধ কারেন্ট জাল অপসারণ করছেন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোঃ পারভেজ। ছবি-দৈনিক হুংকার।

মৎস্য সম্পদ ধ্বংসকারী ক্ষতিকর অবৈধ জাল অপসারণে বিশেষ কম্ভিং অপারেশন-২০২৩ চলমান রয়েছে। এই বিশেষ অভিযান ৪ জানুয়ারী থেকে প্রথম ধাপ চলমান রয়েছে।
বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারী) শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ জাকির হোসেন ও সুরেশ্বর নৌ পুলিশ এর সহযোগিতায় যৌথ অভিযান পরিচালিত হয়।
এতে গত ২৪ ঘন্টায় এ অভিযানে ২৬০ কেজি জাটকা মাছ, ৮০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, প্রায় ১ কিলোমিটার লম্বা ২ টি অবৈধ ইলিশ বাধ উদ্ধার করা হয়।
পরে অবৈধ কারেন্ট জাল গুলো বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয় এবং মাছগুলো স্থানীয় এতিমখানায় বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। অবৈধ ভাবে গড়ে ওঠা ইলিশ বাধটি ধংশ করা হয়েছে।
এ বিষয় নড়িয়া উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ পারভেজ বলেন, মৎস্য সম্পদ ধ্বংসকারী ক্ষতিকর অবৈধ জাল অপসারণে বিশেষ কম্ভিং অপারেশন-২০২৩ চলছে। এই অভিযানে ২৬০ কেজি জাটকা মাছ, ৮০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, প্রায় ৫ শত মিটার লম্বা ২ টি ইলিশ বাধ উদ্ধার করেছি। অবৈধ কারেন্ট জাল পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়, জাটকা ইলিশ মাছ স্থানীয় এতিম খানায় বিতরন করা হয়। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।