শনিবার, ২ জুলাই ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ জিলহজ ১৪৪৩ হিজরি
শনিবার, ২ জুলাই ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

টাকা খেয়ে ভোট না দেয়ার অভিযোগে রাসেলকে মারধর

নড়িয়ার মুলফৎগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রাসেল। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শত্রুতা উদ্ধারে রাসেল খন্দকার (৩০) নামের এক যুবককে মারধর করেছে সাবেক মেম্বার জাহাঙ্গীর খান ও তার বাহিনী। শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের দক্ষিন পাড়া গ্রামের মফিজ উদ্দিন খন্দকারের ছেলে রাসেল। গত ইউপি নির্বাচনে টাকা খেয়ে ভোট দেয়নি এমন অভিযোগ এনে রাসেলকে মারধর করেছে ডিঙ্গামানিক ইউপির সাবেক মেম্বার জাহাঙ্গীর খান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী। এই বিষয়ে নড়িয়া থানায় অভিযোগ করেছে রাসেল খন্দকার।
অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, গত ২১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় রাসেল মেজর হাবিবুর এর পুকুরে গোসল করতে যায়। সেখানে সাবেক মেম্বার জাহাঙ্গীর খান ও তার ভাই আক্কাস খান অপরিচিত ৫-৬ জন লোক নিয়ে এসে রাসেলকে লোহার রড ও পাইপ দিয়ে পিটায়। ও আমার কাছ থেকে ১ হাজার টাকা খেয়েও ভোট দেয়নি। ওকে জীবনে শেষ করে ফেল। তখন রাসেল ডাক চিৎকার করিলে প্রতিবেশী পারভেজ খান, লায়লা আক্তার, ইকবাল খান ও ইউনুছ খান এসে সন্ত্রাসীদের হাত থেকে রাসেলকে উদ্ধার করে আহত অবস্থায় মুলফৎগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে।
আহত রাসেল জানায়, জাহাঙ্গীর খান এলাকায় সন্ত্রাসী বাহিনী লালন করে নীরিহ মানুষের উপর নির্যাতন ও জমি দখল করে। আমার বাবা একটি মিথ্যা মামলায় হাজতে ছিলেন। আমাকে মেরে ফেলতে পারলে জাহাঙ্গীর মেম্বার আমাদের জমি দখল করতে পারবে। তাই মিথ্যা অভিযোগ এনে আমাকে মেরে ফেলার চেষ্টা করে।
ডিঙ্গামানিক ইউপি’র সাবেক মেম্বার জাহাঙ্গীর খান বলেন, রাসেল মেজর হাবিবুর এর পুকুরে গোসল করতে ছিল। রাসেল এলাকায় চুরি ও নেশা করে। আমাকে দেখে দৌড়ে পালাতে গিয়ে সে পড়ে যায়। পরে দেখি তার মাথায় রক্ত। আমি বা আমার লোকজন রাসেলকে মারধর করি নাই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।