মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি
মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ডামুড্যায় কল পেলেই বাড়িতে পৌঁছে যাচ্ছে আব্দুর রাজ্জাক ফাউন্ডেশনের অক্সিজেন সেবা

Auto Draft
আব্দুর রাজ্জাক ফাউন্ডেশেনের পক্ষ থেকে রোগীর বাড়িতে অক্সিজেন পৌঁছে দিচ্ছেন ছাত্রলীগকর্মীরা। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুর জেলার ডামুড্যা উপজেলায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় অক্সিজেনের চাহিদা মেটাতে মানবিকতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করে এগিয়ে এসেছেন শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক। আব্দুর রাজ্জাক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ও উপজেলা ছাত্রলীগের সহায়তায়, ডামুড্যা উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন থেকে কল পেলেই দিনরাত ছুটে চলছেন একঝাঁক তরুণ ছাত্রলীগ নেতা কর্মীগণ।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ডামুড্যা পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ও উপজেলার সাতটি ইউনিয়নে তদারকি কমিটি গঠন করা হয়েছে। হটলাইন নাম্বার-০১৪০৫৫৩৫৮৯৬ দেওয়া হয়েছে।
ফোনকল পেলেই নাহিম রাজ্জাক এমপি’র নির্দেশে স্বেচ্ছাসেবীরা অক্সিজেন সিলিন্ডার দ্রুত পৌঁছে দিচ্ছেন রোগীর বাড়িতে।
মুঠোফোনে এ প্রসঙ্গে কথা হয়, নাহিম রাজ্জাক এমপি’র সাথে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে এ অক্সিজেন সেবা কার্যক্রম চালু করেছি। কারণ আমি বুঝি সাধারণ মানুষের সমস্যার কথা, তাই চেষ্টা করে যাচ্ছি জাতে করে একজন মানুষও অক্সিজেন এর অভাবে মারা না যায়। নাহিম রাজ্জাক আরো জানান, অক্সিজেন সেবার পাশাপাশি করোনাভাইরাস জনিত কারণে যে সকল খেটে খাওয়া মানুষ অসহায় হয়ে পড়েছেন তাদের জন্য আব্দুর রাজ্জাক ফাউন্ডেশনের পক্ষ হতে প্রতিটি পরিবারের জন্য দেওয়া হচ্ছে খাদ্য সহায়তা।
উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলম বলেন, আমরা রাত দিন সব সময় প্রস্তুতি নিয়ে থাকি, যেকোনো সময় ফোন পাওয়ার সাথে সাথে আমরা বিনামূল্যে আব্দুর রাজ্জাক ফাউন্ডেশনের অক্সিজেন সেবা ও ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছি।
অক্সিজেন সেবার উদ্যোক্তা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এনামুল হক ইমরান জানান, আজ শুক্রবার (৬ আগষ্ট) সহ প্রায় শতাধিক রোগীর অক্সিজেন সেবা, গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা কবলিত রোগীদের এ্যাম্বুলেন্স যুগে শরীয়তপুর সদর ও ঢাকায় পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেছি। জরুরি অক্সিজেন সেবা কার্যক্রমে ১২টি অক্সিজেন সিলিন্ডার, ৩০টি ন্যাজাল ক্যানোলা এবং ১০টি নেবুলাইজার রয়েছে। পরে এসব উপকরণ আরও বৃদ্ধি করা হবে। যাতে করোনা আক্রান্ত রোগীরা অক্সিজেন সংকটে না ভোগেন। এ সেবা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য ৪০ জনের একটি স্বেচ্ছাসেবক টিমও গঠন করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।