বুধবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি
বুধবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ডামুড্যায় শিশু যৌন হয়রানির অভিযোগে বৃদ্ধ আটক

ডামুড্যায় শিশু যৌন হয়রানির অভিযোগে বৃদ্ধ আটক
ডামুড্যায় শিশু যৌন হয়রানির অভিযোগে বৃদ্ধ আটক

শরীয়তপুরের ডামুড্যা উপজেলার দারুল আমান ইউনিয়নের উত্তর ডামুড্যা ৯ নং ওয়ার্ডে ৭ বছর বয়সী চার শিশু কে ইভটিজিং ও যৌন হয়রানির অভিযোগে ৬৫ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ কে গ্রেপ্তার করেছে ডামুড্যা থানা পুলিশ। গত মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) রাতে শিশুটির মা বাদী হয়ে ডামুড্যা থানায় মামলা দায়ের করেন। এর পর বুধবার রাতে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
ডামুড্যা থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১২ জুলাই সোমবার বিকেলে দারল আমান ইউনিয়নের উত্তর ডামুড্যা গ্রামের সাত বছর বয়সী শিশুসহ কয়েকজন শিশু খেলা করছিল। এসময় আশে পাশে কেউ না থাকায় প্রতিবেশী মোসলেম বেপারী (৬৫) নামে এক ব্যক্তি ঐ শিশুকে চকলেটের প্রলোভন দেখিয়ে ডেকে নিয়ে তার গোপনাঙ্গে হাত দেয়। এসময় শিশুটির চিৎকার দিলে তার বাবা মা সহ স্থানীয় প্রতিবেশীগণ দৌঁড়ে গিয়ে শিশুটি কে উদ্ধার করে। এ সময় অভিযুক্ত মোসলেম বেপারী দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। বিষয়টি মিমাংসার জন্য স্থানীয় চেয়ারম্যানের নিকট যায়। কিন্তু অভিযুক্ত মোসলেম বেপারী বিচার বসার নামে টালবাহানা শুরু করেন। দারুল আমান ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বেশ কয়েক বার অভিযুক্ত মোসলেম বেপারী কে ফোন করেও তাকে বিচারে বসাতে পারেনি। অতপর ভুক্তভোগী শিশুটির মা বাদী হয়ে ডামুড্যা থানায় ইভটিজিং, নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তালুকদার অভিযুক্ত মোসলেম বেপারী কে গ্রেপ্তার করেন।
এ বিষয়ে কথা হয় ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সবুজ মেম্বারের স্ত্রী নাহার বানু, জানান যে, আসামী মোসলেম বেপারী মাঝে মাঝে তাঁর এলাকার গরীব, অসহায় মহিলাদের কে বিভিন্ন সময়ে কুপ্রস্তাব দিত। ছোট ছোট শিশুরা তাঁর বাগানের মধ্যেদিয়ে মক্তবে যাওয়ার সময় তাদেরকে অশ্লীল ভাষায় কথা বলত এবং কুপ্রস্তাব দিত। শিশুরা তাদের মা-বাবার নিকট বিচার দিলে তাঁরা বিশ্বাস করতো না। কিন্তু ওই দিন তাকে হাতে নাতে ধরলে তিনি দৌঁড়ে পালিয়ে যান। তিনি বলেন, আমি এ চরিত্রহীনের কঠিন বিচার দাবি করছি।
অভিযুক্তের মেয়ে সাহানা (৩৫) বলেন, আমার বাবা এমন লোক না। সে এতো খারাপ কাজ করতে পারেনা। মামলার বাদীদের সাথে জমি জমা নিয়ে বিরোধ থাকায় তাঁরা কৌশলে আমার বাবাকে ফাঁসিয়েছে।
ডামুড্যা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শরীফ আহমেদ বলেন, ইভটিজিং, নারী ও শিশু নির্যাতনের অভিযোগ এনে শিশুটির মা মঙ্গলবার রাতে ডামুড্যা থানায় মামলা দায়ের করেন। আমরা অভিযুক্ত কে গ্রেপ্তার করে থানা নিয়ে এসেছি। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রস্তুত শেষে তাকে আদালতে পাঠিয়ে দিব।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।