মঙ্গলবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
মঙ্গলবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

ডামুড্যায় কোরআন অবমাননা করায় এক ভূয়া কবিরাজ কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

ডামুড্যায় কোরআন অবমাননা করায় এক ভূয়া কবিরাজ কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ
ডামুড্যা থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার ভুয়া কবিরাজ মনির হাওলাদার। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুর জেলার ডামুড্যা উপজেলায় মো: মনির হোসেন (৩৩) নামে এক যুবক কোরআন শরীফ ছিড়ে ও পুড়ে টুকরা টুকরা করার কারণে উক্ত ফকির (কবিরাজ) কে গ্রেফতার করেছে ডামুড্যা থানা পুলিশ।
মনির হাওলাদার সিড্যা ইউনিয়নের ৮ ওর্য়াড আমির হোসেন হাওলাদারের ছেলে। এর আগে বেশ কয়েক বছর জেল খাটেন তিনি।
১৪ অক্টোবর বুধবার সকাল থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভন্ড কবিরাজ মনির কোরআনের পাতা ছিরছে এমন একটি ছবি ভাইরাল হয়, এরপর থেকেই ডামুড্যা উপজেলায় বিভিন্ন স্থানে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে ধর্মপ্রাণ মুসল্লী ও সাধারণ মানুষ মনিরের ফাঁসির দাবি জানান।
একই এলাকার জাহাঙ্গীর হাওলাদার বলেন, ভন্ড ফকির মনির কোরআন অবমননা করে সে মুসলমানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় গ্রন্থ পবিত্র আল কোরআন এর পাতা ছিরে কুফুরি কালাম করে মানুষকে ধোঁকা দিচ্ছে, তাই আমি বাধ্য হয়েই মনির হাওলাদারের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করি।
এলাকাবাসী থেকে জানা যায়, কোরআন কে অবমাননা করে দীর্ঘ দিন যাবত মনির বিভিন্ন রোগের ঝাড়ফুক দিয়ে আসছেন। ফকিরগিরি ও তাবিজে মানুষের উপকার হয় বলে অনিকেই জানান। কিন্তু সে কিভাবে এটা করতো তা কেউ জানতো না। এছাড়া তার বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারীরও অভিযোগ রয়েছে বেশ কয়েকটি।
ডামুড্যা থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ মেহেদী হাসান পিপিএম বলেন, আমরা ঘটনা শুনে তদন্ত করি এবং মনির হাওলাদার কে গ্রেফতার করে শরীয়তপুর কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।