শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ডামুড্যায় অসহায় জামালের পাশে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও পৌর মেয়র

ডামুড্যা অসহায় জামালের পরিবারের হাতে নগর অর্থ তুলে দিচ্ছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাছিবা খান। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুরের ডামুড্যায় সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত জামাল-আকন ও তার অসহায় পরিবারের পাশে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করে পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাসিবা খান ও পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম রাজা ছৈয়াল।
শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১ টায় আহত জামাল আকনের ডামুড্যা পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের বাড়িতে উপস্থিত হন উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাছিবা খান। এসময় জামালের বাড়িতে ছিলেন তার অসুস্থ বৃদ্ধ-মা মনোয়ারা বেগম মেয়ে লায়লা, ছেলে আল আমিন ও ছোট মেয়ে নীলা। উপজেলা নির্বাহী অফিসার অসহায় জামালের মা ও সন্তানদের আশ্বস্ত করেন আপনাদের পাশে আমরা আছি কোন সমস্যা হলে আমরা দেখব এবং জামালের মার হাতে নগদ ১০ হাজার টাকা তুলে দেন। এসময় মেয়র রেজাউল করিম রাজা ছৈয়ালও তাদের হাতে নগদ ৫ হাজার টাকা তুলেদেন।
উল্লেখ্য গত মঙ্গলবার ২০ সেপ্টেম্বর উপজেলার দারুল আমান ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডে বকুলতলা নামক স্থানে এক শিশুর লাশ পাওয়া যায়। বিষয়টি জানার জন্য স্থানীয় উজ্জ্বল ফকিরকে জিজ্ঞেস করতে গেলে উজ্জ্বল ফকির ধারালো অস্ত্র দিয়ে দিন মজুর জামাল আকন ও স্থানীয় আনসার সদস্য মোঃ নান্নু বেপারী কে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। বর্তমানে জামাল আকন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এবং নান্নু বেপারী স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।
জামালের প্রতিবেশী জোসনা বেগম বলেন, জামালের পরিবারের তার অসুস্থ বৃদ্ধ মা দুই মেয়ে ও এক সন্তান নিয়ে সে রিক্সা চালিয়ে সংসার চালাতেন এখন সংসার চালাতেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাছিবা খান বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ বিভিন্ন মাধ্যমে আমি জানতে পারি যে অসহায় জামাল তার পরিবারের সংসার চালাতে ও চিকিৎসা করতে সমস্যা হচ্ছে। তাই আমি তাদের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে নগদ ১০ হাজার টাকা তার অসুস্থ মা ও সন্তানদের হাতে তুলে দিয়েছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।