শনিবার, ২ জুলাই ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ জিলহজ ১৪৪৩ হিজরি
শনিবার, ২ জুলাই ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ডামুড্যায় ‘আমরা রমণী’ এর সেলাই মেশিন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র উদ্বোধন

Auto Draft
ডামুড্যায় ‘আমরা রমণী’ এর সেলাই মেশিন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্বোধন করছেন সংগঠনের সভাপতি মালিয়া হোসেন। ছবি-দৈনিক হুংকার।

নারীদের কর্মসংস্থান, বেকারত্ব দুরীকরণ ও আর্থিক সচ্ছলতার লক্ষ্যে আব্দুর রাজ্জাক ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে বুধবার (১৫ জুন) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শরীয়তপুরের ডামুড্যা উপজেলায় শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাকের বাসভবনে ‘আমরা রমণীর’ সেলাই মেশিন প্রশিক্ষণ ও কর্মসংস্থান প্রকল্পের অধীনে ‘সুতোর খেলা’ নামে একটি সেলাই মেশিন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র উদ্বোধন করা হয়।
উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণ কেন্দ্র উদ্বোধনের পাশাপাশি আমরা রমণী উড়ড়ৎ ঃড় উড়ড়ৎ গড়নরষব ঊহঃৎবঢ়ৎবহবঁৎং প্রকল্পের আওতায় নতুনভাবে নির্বাচিত আরও ৫ জন নারী উদ্যোক্তাদের হাতে ‘উদ্যোক্তা ব্যাগ’ তুলে দিয়েছে।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আমরা রমণীর কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি মালিয়া হোসেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডামুড্যা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকতা ফাতিমা নাহিয়ান, ডামুড্যা উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খাদিজা খানম লাভলী ও গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা বেগম, ডামুড্যা প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুল ইসলাম সোহেল, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নান্নু মৃধা।
আমরা রমণীর সভাপতি মালিয়া হোসেন শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, এই এলাকার নারীরা যাতে আত্মনির্ভরশীল ও স্বাবলম্বী হতে পারে সেজন্য আজ থেকে আমরা রমণী ১২টি সেলাই মেশিন ও প্রথম ব্যাচে ২৫ জন মহিলা নিয়ে এ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের যাত্রা শুরু করলো। নারীরা এখন আর ঘরে বসে নেই। সামাজিক নানা প্রতিবন্ধকতা দূর করে সকল স্তরের নারীরা এগিয়ে যাচ্ছে। যারা এখান থেকে প্রশিক্ষণ নিতে যাচ্ছেন, তারাও সেলাই মেশিনকে নিজেদের হাতিয়ার বানিয়ে আরও দূর পর্যন্ত এগিয়ে যাবেন বলে আমি আশা রাখি। আশা করি এই সেলাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে কাজ শিখে সকল নারী অভাব ঘোচানোর পাশাপাশি নিজেদের বেকারত্বও হ্রাস করবে।
প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক বলেন, আমাদের ‘আমরা রমণীর’ উদ্যোগের সফলতা তখনই হবে যখন আপনাদের সফলতা আসবে। আপনাদের সকল কার্যক্রমে আমি সবসময় ইতিবাচক মনোভাব প্রকাশ করে আসছি। সেই ভাবনা থেকেই আমরা রমণীকে আরও বড় আকারে প্রতিষ্ঠিত করতে যাচ্ছি। সেই জন্য সবসময় আপনাদের সহযোগিতা কাম্য।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।