বুধবার, ২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি
বুধবার, ২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ফেসবুকে স্ট্যাটাসের পর অসহায় রাস্টন গাজীকে অটোবাইক উপহার

ফেসবুকে স্ট্যাটাসের পর অসহায় রাস্টন গাজীকে অটোবাইক উপহার
উপমন্ত্রীর পক্ষে রাস্টন গাজীর হাতে অটোবাইক এর চাবি তুলে দিচ্ছেন চরভাগা ইউপি চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান সিকদার। ছবি-দৈনিক হুংকার।

রাস্টন মিয়া গাজী শরীয়তপুরের সখিপুর থানার চরভাগা ইউনিয়নের পশ্চিম ঢালী গ্রামের বাসিন্দা। ৬ সদস্যের সংসারে আয়ের একমাত্র অবলম্বন ছিলো তার একটি ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক (অটোবাইক)। ঋণের টাকায় কেনা সেই অটোবাইকটি মঙ্গলবার রাতে চুরি হয়ে যায়। এতে দিশেহারা হয়ে পড়ে পরিবারটি। বিষয়টি নিয়ে অসহায় রাস্টন মিয়ার ছেলে আবজাল গাজী ফেসবুকে আবেগঘন একটা স্ট্যাটাস দেন “বুধবার ফেসবুকে রাস্টন মিয়ার ছেলে আবজাল গাজী লেখেন, ‘আমার বাবা, অটোরিকশা (ইজিবাইক) চালিয়েই আমাদের সংসারের ঘানি টেনে যাচ্ছিলেন। কিন্তু সেই সম্বলটাও নিজেদের বাড়ির সামনে থেকে কারা যেন নিয়ে গেছে। এভাবেই জরাজীর্ণ জীবন। আর এই অটোবাইকটাও ঋণের টাকায় কেনা ছিলো। কিছু দিন আগে নতুন ব্যাটারিটাও ধারের টাকায় কেনা। এখন পথে নামা ছাড়া আর কোনো উপায় নাই। বশির মাস্টার কাকার বাড়ির পাশে রেখে প্রতিদিনের ন্যায় আজও বাবা বাসায় যান, কিন্তু ফিরে এসে দেখেন অটোবাইকটি নাই। কি করবো, দিশেহারা। একটা গাড়ি একটা স্বপ্ন। গাড়ির চাকাটা থেমে গেছে। এবার মনে হয় স্বপ্নটাও থেমে যাবে!”। এই স্ট্যাটাস দেখে শরীয়তপুর-২ আসনের এমপি, পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম ওই ছেলের সাথে কথা বলেন। শুক্রবার বিকালে ভেদরগঞ্জ বাজার থেকে রাস্টন মিয়ার পছন্দমতো ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা মূল্যের নতুন অটোবাইক কিনে দেন। উপমন্ত্রীর পক্ষে শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও চরভাগা ইউপি চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান সিকদার অটোবাইক ও চাবি বুঝিয়ে দেন রাস্টন মিয়াকে। এছাড়াও দুর্দশার কথা শুনে রাস্টন মিয়ার সন্তানদের লেখাপড়ার দায়িত্বও নেন উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম।
আবেগে আপ্লতু হয়ে রাস্টন মিয়া বলেন, আমাগো মন্ত্রী এনামুল হক শামীম সাবের জন্য দোয়া করি। আমি ও আমার পরিবারের সবাই তার কাছে চিরকৃতজ্ঞ। আল্লাহ তার ভাল করুক।
এব্যাপারে বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান সিকদার বলেন, জননেতা একেএম এনামুল হক শামীম মাটি ও মানুষের জন্য রাজনীতি করেন। তিনি ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেখে অসহায় ব্যক্তিকে নতুন অটোবাইক কিনে দিলেন। পাশাপাশি অটো চুরির ঘটনা উদঘাটন ও দোষীদের খুঁেজ বের করার জন্য সখিপুর থানা পুলিশকে নির্দেশনা দেন। তিনি সবসময় এলাকার মানুষের পাশে ছিলো, আছে ও আগামীতেও থাকবে। এজন্য বারবার তাকেই আমাদের প্রয়োজন।
এদিকে নতুন অটোরিকশা কিনে দেয়ায় উপমন্ত্রী শামীমের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ফেসবুকে আবজাল গাজী আবারও লেখেন, ‘ধন্যবাদ এ কে এম এনামুল হক শামীম ভাই, মাননীয় পানিসম্পদ উপমন্ত্রী, এমপি শরীয়তপুর-২। আমার বাবার অটোরিকশা (ইজিবাইক) গতকাল চুরি হয়ে যাওয়ায় আমি ফেসবুকে ঘটনাটি নিয়ে কয়েকটা পোস্ট দেই। আমি ও আমার পরিবারের সবাই ভেঙে পড়ছি। এই ঘটনা মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়ের নজরে এলে তিনি নিজে থেকে আমাকে একাধিক বার ফোন দেন। আমাদের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দেন। গাড়ির ব্যবস্থা করে দেবেন বলে আশ্বস্ত করেন। এমন এমপি, মন্ত্রী সর্বত্র বাংলায় হোক, তাহলে তো সোনার বাংলা হবে। যারা আমাদের মতো নিম্ন মধ্যবিত্ত থেকে শুরু করে সবারই খোঁজ খবর রাখেন। ধন্য এমন জনপ্রতিনিধি পেয়ে।’
এর আগে শুক্রবার সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সখিপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ষ্টেশন বাজারের সাথে কার্পেটিং রাস্তা ভেঙে পড়ে যাওয়ায় দ্রুত মেরামতের জন্য জিওব্যাগ ডাম্পিং প্লেসিং কার্যক্রমের খোঁজখবর নেন ও নির্দেশনা দেন উপমন্ত্রী।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।