বুধবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি
বুধবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

স্বাস্থ্যবিধি মেনে সখিপুরে বসেছে কুরবানির পশুরহাট

স্বাস্থ্যবিধি মেনে সখিপুরে বসেছে কুরবানির পশুরহাট
সখিপুরে গরুর হাট পরিদর্শন করছেন উপজেলা নিবার্হী অফিসার তানভীর আল নাসীফ। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুর ভেদরগঞ্জ উপজেলার অন্যতম গো-হাট সখিপুর ইসলামীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ এর উদ্যোগে ও সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ও স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনে ক্রেতা-বিক্রেতারদের প্রতিশ্রুতির পরে এ গরুর হাট বসেছে।
বুধবার (৭ জুলাই) সকাল থেকে হাটের দুইটি প্রবেশ মুখে মাস্ক, হ্যান্ডস্যানেটাইজার নিয়ে কাজ করেছে ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ, উপজেলা সহকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (ভূমি) শংকর চন্দ্র বৈদ্য ও জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার অভিজিৎ সুত্রধর এর নেতৃত্বে পৃথক পৃথক তিনটি টিম। এর ফলে শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের পাশাপাশি গরু হাটে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সমাগম সীমিত ছিল।
ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ জানান, সারাদেশে সংক্রমণ বাড়ছে। তাই করোনা ভাইরাস রোধে আমরা রাত দিন কাজ করে যাচ্ছি। যেহেতু সামনে ঈদুল আযহা। তাই সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী গরুর হাট বসবে। যাতে করে হাটে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ক্রেতা ও বিক্রেতারা বেচাকেনা করতে পারে, তাই আমাদের এই ব্যতিক্রম উদ্যোগ। এখানে প্রতি সপ্তাহে গরুর হাট বসে। বুধবারও যথারীতি গরুরহাট বসেছে। হাটে সকালে দুজন ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশ সদস্যরা ছিলেন। আসন্ন কুরবানী ঈদ উপলক্ষে জেলা ও উপজেলার খামারীরা একটি বছর তাদের গরু লালন পালন করে বিক্রির জন্য অপেক্ষায় আছে। আবার যারা কুরবানী করবেন তারাও গরু ক্রয় করার জন্য বাজারে আসছেন। কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি না মানলে দিন দিন যেভাবে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে আমাদের পরিস্থিতি ভয়াবহ হবে। তাই আমরা মানুষ বাঁচানোর জন্যই প্রবেশ পথ সংকীর্ন করে ক্রেতা-বিক্রেতার সমাগম হ্রাসের পাশাপাশি তাদের মাস্ক পরিধান ও হ্যান্ডস্যানেটাইজ করার ব্যবস্থা নিয়েছি। এভাবে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন করতে ব্যর্থ হলে আমরা প্রয়োজনে হাট বন্ধ করে দিতে বাধ্য হবো। তাই মানুষকে বাঁচার সুযোগ দিয়ে তাদের জীবিকা সচল রাখার জন্য সবাইকে সচেতন হয়ে কাজ করতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।