মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি
মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শরীয়তপুরে ৯ম শ্রেণির ছাত্রী অপহৃত, আদালতে মামলা

Auto Draft
অপরহরণকারী আঃ রহিম শেখ । ফাইল ফটো।

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার ছয়গাঁও গ্রামের জানে আলম ফকিরের কন্যা স্থানীয় আলহাজ¦ কাজী দিদার বক্স ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার ৯ম শ্রেণির ছাত্রী ফারজানা আক্তার জুঁইকে অপহরণ করেছে দুবৃর্ত্তরা। এ বিষয়ে রবিবার (২৩ মে) সকালে ওই ছাত্রীর পিতা জানে আলম ফকির বাদী হয়ে শরীয়তপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে একটি মামলা দায়ের করেছেন। আদালত মামলাটিকে এফআইআর হিসেবে গ্রহণ করার জন্য ভেদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, ফারজানা আক্তার জুঁই মাদ্রাসায় আসা-যাওয়ার পথে স্থানীয় নুরু বেপারীর বখাটে ছেলে সাগর বেপারী তাকে দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্নভাবে উত্যক্ত করাসহ বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এতে ফারজানা আক্তার জুঁই রাজী না হলে তাকে অপহরণের হুমকি দিত আসামীরা। ২১ মে সন্ধ্যায় ফারজানা আক্তার জুঁইদের প্রতিবেশী আব্দুর রহিম শেখ কথা শুনতে বলে জুঁইকে তাদের বাড়ির সামনের রাস্তায় ডেকে নিয়ে যায়। এসময় মাইক্রোবাস নিয়ে ওঁৎ পেতে থাকা একই গ্রামের নুরু বেপারীর ছেলে সাগর বেপারী, আনোয়ার বেপারী এবং আব্দুল কাদের শেখের ছেলে আব্দুর রহিম শেখ ও আব্দুল করিম শেখসহ অজ্ঞাত আরো ২জন ওই ছাত্রীকে জোর করে মুখে গামছা পেঁচিয়ে মাইক্রোতে তুলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। এ ঘটনার পর থেকে ওই ছাত্রীর পিতা-মাতা ও আত্মীয় স্বজন শোকাহত হয়ে পড়েছে।
অপহৃত ছাত্রীর পিতা জানে আলম ফকির বলেন, আমি আমার মেয়েকে ফিরে পেতে চাই। আর এই ঘটনার সাথে যারা জড়িত তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করছি। আমার মেয়েকে উদ্ধার করার জন্য প্রশাসনের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি। নয়তো আমার মেয়ের বড় ধরণের ক্ষতি হয়ে যাবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।