মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি
মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

অসহায় মানুষের ঠিকানা ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর-আল-নাসীফ

অসহায় মানুষের ঠিকানা ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর-আল-নাসীফ
অসহায় মানুষের হাতে খাবারের প্যাকেট তুলে দিচ্ছেন ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী তানভীর আল নাসীফ। ছবি-দৈনিক হুংকার।

ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ। অফিস শেষ করে তিনি গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে যান। কখনও সঙ্গী হন স্ত্রী বা ছোট্ট সন্তান। নিজের দায়িত্বরত উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘোরেন। কৃষক, শ্রমিক-রাস্তার পাশের অসহায় মানুষের হাতে তুলে দেন খাবারের প্যাকেট। অফিস ছুটির পর নিজের টাকাতেই খাবার কিনে পৌঁছে দেন দুস্থ মানুষের হাতে।
উপজেলা প্রশাসনের এই কর্মকর্তা ভেদরগঞ্জ উপজেলার ১৩ ইউনিয়ন ও ১ পৌর এলাকার সাধারণ মানুষের কাছে হয়ে উঠেছেন অনন্য এক মানুষ। ধানকাটা শ্রমিক, মাটিকাটা শ্রমিক, ইটভাটার শ্রমিক, হকার থেকে শুরু করে বেদে পল্লীর দুস্থ মানুষের আপনজন হয়ে উঠেছেন তিনি।
৩১তম বিসিএসের প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা তানভীর আল নাসীফ বলেন, ‘একদিন তার জেলা প্রশাসক মোঃ পারভেজ হাসান স্যার তাকে বলছিলেন, সাধারণ মানুষের জন্য এখনই কিছু করার সময়। প্রশাসনের কর্মকর্তারা গ্রামে দায়িত্ব পালন করার সময়ে দুস্থ, অসহায় মানুষের কাছাকাছি থাকতে পারেন। পদোন্নতি বা শহরে দায়িত্ব পালন করলে সেভাবে এটা করা সম্ভব হয় না। জেলা প্রশাসকের উৎসাহে তিনি সরকারি দায়িত্ব পালনের বাইরে চলমান করোনা সমস্যার মধ্যে অতি সাধারণ মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন।
তিনি বলেন, অফিস শেষে একেক দিন ভেদরগঞ্জ উপজেলার একেক ইউনিয়নে যান তিনি। গত ১৯ দিন ধরে প্রত্যান্ত গ্রাম ঘুরে, কাঁচা রাস্তায় হেঁটে অসহায় মানুষের দেখা পেলে তাদের হাতে খাবারে প্যাকেট তুলে দেন। প্রতিদিন ৫০ থেকে ১০০ জন দরিদ্র, অসহায় ও খেটে খাওয়া মানুষের হাতে এক পিস মুরগি, একটা ডিমসহ এক প্যাকেট বিরিয়ানির বক্স তুলে দেন।
তানভীর আল নাসীফ আরও বলেন, সরকারি দায়িত্ব পালনকালে ব্যস্ততার কারণে সেভাবে সাধারণ মানুষের কথা জানা হয় না। কিন্তু খাবার পৌঁছে দিতে গিয়ে সরাসরি প্রান্তিক মানুষের সঙ্গে মিশতে পারছি, তাদের কথা জানতে পারছি। এতে নিজের দায়িত্ব পালনও সহজ হচ্ছে। উপজেলা প্রশাসনের একজন কর্মকর্তাকে মাঝে পেয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে অনুভুতি জাগ্রত হয় তা শুধু অনুভবই করা যায়। বলে বুঝানো সম্ভব নয়।
মহিষার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ দেলোয়ার হোসেন সরদার জানায়, উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ পর্যন্ত ভেদরগঞ্জের মহিষার, ছয়গাঁও, রামভদ্রপুর, নারায়ণপুর, চরকুমারিয়া, চরভাগা, ডিএমখালী ও সখিপুর এলাকায় ৯০০ প্রান্তিক মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করেছেন। এ ছারাও তিনিএ উপজেলায় দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই জনবান্ধব কাজ করে আসছেন। সাধারণ মানুষের সঙ্গে মিশে যাচ্ছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।