মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি
মঙ্গলবার, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শহীদ সহিদুল্লাহ্ এর মাগফিরাত কামনায় খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ

শহীদ সহিদুল্লাহ্ এর মাগফিরাত কামনায় খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ
শহীদ সহিদুল্লাহ এর মাগফিরাত কামনায় খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ করছেন মনোয়ার হোসেন সরদার। ছবি-দৈনিক হুংকার।

মহান মুক্তিযুদ্ধের ডামুড্যার রনাঙ্গনে সন্মুখ যুদ্ধে শাহাদাত বরণকারী শহীদ সহিদুল্লাহ্ সরদারে রুহের মাগফিরাত কামনায় ভেদরগঞ্জ উপজেলার মহিষার ইউনিয়নের ২০০ পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার মহিষার ইউনিয়নের পম সরদার বাড়ি থেকে করোনা দূর্যোগে বেকার হয়ে পরা কর্মহীন মানুষের মাঝে এ সহায়তা বিতরণ করা হয়। জার্মান প্রবাসী শহীদ সহিদুল্লাহ্ সরদার এর ভাই মনোয়ার হোসেন সরদার তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে জন প্রতি ২০ কেজি চাউল, ২ কেজি মসুর ডাল, ১ লিটার তেল ও নগদ ৫০০ টাকা বিতরণ করেন।
বিতরণ অনুষ্ঠানে দাতা মনোয়ার হোসেন সরদার ছারাও উপস্থিত ছিলেন সরদার পরিবারের সন্তান সমাজ সেবক সরদার আনিসুর রহমান (স্বপন), মরহুম সেকান্দার আলী কল্যান ট্রাস্টের চেয়ারম্যান ও লন্ডন প্রবাসী সরদার আবদুস সাত্তার তরুন,  স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য সরদার তোতা, ভেদরগঞ্জ বাজার বনিক সমিতি নির্বাচিত সহসভাপতি সরদার নূরে আলম রোমান, সিকদার শফিকুর রহমান খোকন ও প্রিন্স সিকদার। এর পূর্বে দোয়া মোনাজাত করা হয়। এসময় সহায়তা প্রদানকারি সরদার মনোয়ার হোসেন বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর পেরিয়ে গেলেও শহীদ সরদার সহিদুল্লাহ্ এর কোন মূল্যায়ন হয়নি। তিনি ১৯৭১ সালের ১৫ অক্টোবর মহান মুক্তিযুদ্ধের ডামুড্যার রনাঙ্গনে সন্মুখ যুদ্ধে শহীদ হন। পূর্বমাদারীপুর মহাবিদ্যালয় ডামুড্যা এর প্রথম ব্যাচের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন তিনি। ভেদরগঞ্জ উপজেলার তৎকালিন সময়ের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক হাজী লাল শরীফ সরদারের পুত্র। এ মুক্তিযোদ্ধার সঠিক মূল্যায়ন চান তার পরিবার। তারা বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধাদের জন্য সীমাহীন অবদান রেখেছেন। যা সকল জাতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধারা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছে। অথচ আমার ভাই শহীদ মুক্তিযোদ্ধা হয়েও অবহেলিত অবস্থায় পারিবারিক কবরস্থানে শুয়ে আছে। সরকারি বেসরকারি কেউ তার খোঁজ রাখেনা।
শহীদ এ মুক্তিযোদ্ধার প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শনের করার পাশাপাশি তাকে রাষ্ট্রিয় সম্মান জানানোর জন্য সরকার ও মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের প্রতি দাবী জানিয়েছেন। শহীদ সহিদুল্লাহ্ অবিবাহিত অবস্থায় শহীদ হওয়ায় সরকারে কাছে আর্থিক কোন চাওয়া নেই। তাকে শহীদ মুক্তিযোদ্ধার প্রাপ্ত সম্মান টুকু তার প্রদানের দাবী জানিয়েছে তার পরিবার।

সংবাদটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

মন্তব্য

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।