শুক্রবার, ৫ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে রজব, ১৪৪২ হিজরি
শুক্রবার, ৫ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভেদরগঞ্জে আওয়ামীলীগ মেয়র প্রার্থীর বাড়ির সামনে ককটেল বিস্পোরণ আহত-৪

ভেদরগঞ্জে আওয়ামীলীগ মেয়র প্রার্থীর বাড়ির সামনে ককটেল বিস্পোরণ আহত-৪
ভেদরগঞ্জে আওয়ামীলীগ মেয়র প্রার্থীর বাড়ির সামনে ককটেল বিস্পোরণে আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ছবি-দৈনিক হুংকার।

১৭ জানুয়ারি রাত সারে ১০ টার দিকে ভেদরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র হাজী আব্দুল মান্নান হাওলাদার এর বাড়িতে ও তার পুরানো পৌরসভা অফিসের সামনে ককটেল বিস্পোরণ হয়। এসময় সংর্ঘষে অন্তত ২০ জন আহত হওয়ার দাবী করলেও ৪ জন ভেদরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ফ্রিজের মেকার মামুন সিকদার জানান, রাত সারে ১০টার দিকে সন্ত্রাসীরা বোমা হামলা করে এবং ভেদরগঞ্জ থানার সামনে মকবুল হাওলাদারকে একা পেয়ে ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক ভাবে জখম করে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।
মেয়র হাজী আবদুল মান্নান হাওলাদার বলেন, নৌকার পক্ষে গণজোয়ার দেখে বিদ্রোহীরা দিশেহারা হয়ে গেছে। তারাই আমার নেতা কর্মীদের উপর বোমা হামলা করেছে। আমি আগেই বলেছি নৌকা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর মার্কা। যা আমাকে দিয়েছেন আমাদের মানমতার মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রয়োজনে আমি নৌকার জন্য জীবন দিব তার পরেও কোন অপশক্তির কাছে মাথানত করবোনা আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও জনগণের কাছে আমি সন্ত্রাসী ঘটনার বিচার দিলাম।
বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল বাসার চোকদার বলেন, নৌকার প্রার্থী আমার পক্ষে জণজোয়ার দেখে আমাকে বিভিন্ন ভাবে প্রচার কাজে বাঁধা দিচ্ছে। তাতেও ব্যর্থ হয়ে একের পর এক নাটক সাঁজাচ্ছে। আমার বাড়ি ঘরে হামলা করে সে ঘটনা চাপা দিতেই এ ঘটনা ঘটিয়েছে।
ভেদরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ এবিএম রশীদুল বারী জানান, সংঘর্ষের সংবাদ পাওয়ার সাথে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছে। পৌর এলাকায় পুলিশের টহল জোড়দার করা হয়েছে। এখনো থানায় কোন মামলা হয়নি।
ভেদরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের রিটানির্ং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ বলেন, সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে আমি ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছি। পরিস্থিতি এখন প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আইন তার আপনগতিতে চলবে যে বা যারা পরিবেশ ঘোলা করার চেষ্টা করবে এবং যার দোষ প্রমান হবে তাদের বিরুদ্ধেই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।