বৃহস্পতিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

ভেদরগঞ্জে কৃষি পুনর্বাসন কর্মসূচীর বীজ ও সার বিতরণ

ভেদরগঞ্জে কৃষি পুনর্বাসন কর্মসূচীর বীজ ও সার বিতরণ
ভেদরগঞ্জে কৃষি পুর্নবাসন কর্মসূচীর বীজ ও সার বিতরণ করছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ সহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। ছবি-দৈনিক হুংকার।

ভেদরগঞ্জে সরকারের ২০২০-২১ অর্থ বছরের কৃষি পুনর্বাসন কর্মসূচীর আওতায় বীজ ও সার বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ বলেছেন, বাংলাদেশ হচ্ছে কৃষি নির্ভর দেশ এ দেশে আমারা সবাই কৃষক বা কৃষকের প্রজন্ম। আমাদের দেশের পরিবর্তিত পরিস্থিতির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় প্রধান অবলম্বন হচ্ছে কৃষি। সামনের দিনে কৃষিকে বাণিজ্যিক করণ ব্যতিত এ খাতের উন্নয়ন কাঙ্খিত লক্ষে পৌঁছবেনা। বিষয়টিকে গুরুত্বের দিয়ে জাতির পিতার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষির উন্নয়নের জন্য কৃষকের কল্যাণে একের পর এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করে চলছেন।
প্রণোদনার পাশাপাশি কৃষি যন্ত্রে ভর্তুকি, বিনামূল্যে বীজ, সার বিতরণ সহ বিভিন্ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে। তিনি ১৬ নভেম্বর সোমবার ভেদরগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসের উদ্যোগে কৃষি পুর্নবাসন ও প্রণোদনা কর্মসূচীর মাধ্যমে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের মাঝে রবি-২০২০-২১ মৌসুমের ৪ হাজার ২ শত ৯৫ জন কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন।
উপজেলা পরিষদের শহীদ আক্কাছ-শহীদ মহিউদ্দিন মিলনায়তনে ভেদরগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ ফাতেমা ইসলাম এর সঞ্চালনায় বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভেদরগঞ্জ পৌরসভা মেয়র হাজি আবদুল মান্নান হাওলাদার, উপজেলা উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা মোঃ আকতার হোসেনসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন ও পৌরসভার কৃষক কৃষানীগণ।
পুর্নবাসন কর্মসূচিতে ভেদরগঞ্জ উপজেলার ১ পৌরসভা ও ১৩ ইউনিয়নের ৪ হাজার ৯ শত ১৫ জন কৃষকের মধ্যে ৮ শত ১৫ জন কৃষককে গম, ১ হাজার ২৩০ জনকে সরিষার বীজ, ২০৫ জনকে সূর্যমুখি বীজ, ৩০০ জনকে চিনা বাদাম, ৪১০ জনকে মুশুর বীজ, ৫১৫ জনকে, খেশারী বীজ, ৪১০ জনকে টমেটো বীজ, ও ৪১০ জনকে মরিচ বীজসহ ১০ কেজি ডিএপি সার ও ১০ কেজি করে এমওপি সার বিতরণ করা হয়।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।