মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই রজব, ১৪৪২ হিজরি
মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শরীয়তপুরে এসডিএসের পেইস প্রকল্পের ২ দিনের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

শরীয়তপুরে এসডিএসের পেইস প্রকল্পের ২ দিনের প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষণ প্রদান করছেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটউট এর উর্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকতা কৃষি বিজ্ঞানী ড. নাজিম উদ্দিন। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুর জলোর ভেদরগঞ্জ উপজলোর চরভাগা ইউনয়িনরে মিয়ারচর মালতকান্দি গ্রামে ও কাঁচিকাটা ইউনয়িনরে চরজিংকিং-এ এসডিএস (শরীয়তপুর ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি) এর আয়োজনে, পল্লী কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) এর অর্থায়নে পেইস প্রকল্পের আওতায় ‘‘ইকোলোজিক্যাল ফার্মিং পদ্ধতি সম্প্রসারণের মাধ্যমে চরাঞ্চলে উদ্যোক্তাদের আয় বৃদ্ধিকরণ” শীর্ষক ভ্যালু চেইন প্রকল্পভূক্ত ২৫ জন করে ৫০ জন সদস্যদের পরিবেশ গতভাবে স্বাস্থ্যসম্মত সবজি ও ফসল উন্নত ব্যবস্থাপনা (সার, কীটনাশক ও বালাইনাশক প্রতিরোধ ব্যবস্থাপনা এবং অর্গানিক কৃষি ব্যবস্থাপনা) বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। উক্ত প্রশিক্ষন কর্মশালা দুটিতে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটউট এর উর্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকতা কৃষি বিজ্ঞানী ড. নাজিম উদ্দিন, এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইকোলোজিক্যাল ফার্মিং প্রকল্পের ভ্যালুচেইন ফেসিলিটেটর মো: সাজ্জাদুল ইসলাম ও সহকারী ভ্যালুচেইন ফেসিলিটেটর আসাদুজ্জামান রানা। প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষক নিবাপদ ও জৈব পদ্ধতি প্রয়োগ করে চাষীগণ রাসায়নিক সার ও কীটনাশকের ব্যবহার ছাড়াই কিভাবে সবজি উৎপাদন ও প্রতিরোধ ব্যবস্থা গ্রহন করবে সেই বিষয়ে বিশদ আলোচনা করেন। জৈব চাষ পদ্ধতির সহায়ক হিসেবে অ্যারোবিক ও আন-অ্যারোবিক অনুজীব সার তৈরি, জৈব বালাই দমন হিসেবে এগ-ইমালসন, ফেবোমেন ট্রাপ, হলুদ-সাদা-নীল ফাদ, নিম-মেহগনি বীজের ব্যবহার সহ সমন্বিত বালাই দমন সর্ম্পকে কৃষকগণকে হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।