মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই রজব, ১৪৪২ হিজরি
মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভেদরগঞ্জে প্রদর্শনী প্লটের চাষী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

ভেদরগঞ্জে প্রদর্শনী প্লটের চাষী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিবৃন্দ। ছবি-দৈনিক হুংকার।

ভেদরগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসের ব্যবস্থাপনায় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সহযোগিতায় বরিশাল, পটুয়াখালী, ভোলা, ঝালকাঠি, বরগুনা, মাদারীপুর, শরীয়তপুর কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় উন্নত জাতের ফসল উৎপাদ ও কৃষির বাণিজ্যিকী করণে উপজেলার ৬০ কৃষকের দিনব্যাপি প্রশিক্ষন শেষে তাদের মাঝে বিনামূল্যে উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে। ২৬ আগস্ট বুধবার ভেদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ এর শহীদ আক্কাস-শহীদ মহিউদ্দিন মিলনায়তন উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবীদ ফাতেমা ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শরীয়তপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবীদ আমির হামজা। প্রশিক্ষন প্রদান করেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের প্রশিক্ষন অফিসার একেএম মহিউদ্দিন। এসময় উপস্থিত ছিলেন ভেদরগঞ্জ উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার রতন কুমার ঘোষ সহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সুবিধাভোগী কৃষকগণ।
প্রশিক্ষন শেষে জৈব কৃষিও জৈব বালাই ব্যবস্থাপনার জন্য ১৫ কৃষক, লাউ ও কুমড়া জাতীয় সবজির জন্য ১০ জন কৃষক, কাশমিরী কুল আবাদের ১৫ জন কৃষক, আমন ধান চাষের জন্য ০৫ কৃষক, পেয়ারা চাষের ০৫ জন কৃষক, মাল্টা চাষি ০৫ জন কৃষকের মাঝে উপ করণ বিতরণ করা হয়।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষিবীদ আমির হামজা বলেন, জাতির জনকের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার করোনা ও বন্যার দুর্যোগ কাটিয়ে উঠার জন্য আমাদের কৃষির উপর সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছেন। সেই লক্ষে কৃষকদের প্রশিক্ষন, ভর্তুকি, প্রণোদনা ও বিনামূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি কৃষকদের মাঝে বিতরণ করছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উপলব্ধি করেছেন আমাদের দেশের মানুষের বর্তমান সংকট কাটিয়ে উঠার জন্য আল্লাহর পরে কৃষিই প্রধান ভরশা। আমাদের খাদ্য চাহিদা পুরণের জন্য বিদেশের দিকে তাকিয়ে থাকার দিন শেষ হয়ে গেছে। তাই আমাদের খাদ্য আমাদেরই উৎপাদন করতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে উপজেলা কৃষি অফিসার ফাতেমা ইসলাম বলেন, করোনা দূর্যোগের কারণে বিশ্বব্যাপী সকল উন্নয়ন ও অর্থনীতিতে প্রভাব পরেছে। আমাদের এ সমস্যা থেকে উত্তোরণ হতে হলে কৃষিই একমাত্র বাংলাদেশের ভরশা। তাইতো জাতির জনকের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা কর্মচারীরা মৃত্যুর ঝুকি নিয়ে মাঠে ময়দানে কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছে। আমরা যেমন মাঠে রয়েছি তেমনি কৃষকদের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য সব ধরণের সাহায্য সহায়তা প্রদান করছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।