বৃহস্পতিবার, ২৬শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ২৬শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সখিপুরে প্রবাসীর স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম

ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন প্রবাসীর স্ত্রী হাসিনা বেগম। ছবি-দৈনিক হুংকার।

ভেদরগঞ্জের সখিপুরে এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রীকে কুপিয়ে যখম করার অভিযোগ উঠেছে তার ভাসুরের ছেলে-মেয়ে ও স্ত্রীর বিরুদ্ধে। শুক্রবার বিকাল ৪টায় সৌদি প্রবাসী শাহিন সরদারের স্ত্রী হাসিনা বেগমের কাছে ২০ হাজার টাকা দাবী করে তার ভাসুর মাইনদ্দিন সরদারের পুত্র সেলিম সরদার। হাসিনা বেগম টাকা দিতে রাজি না হলে সেলিম সরদার তার বোন মনিরা, মারিয়া, মৌসুমী ও মা ডলি আক্তার হাসিনাকে মারধর করে গলার স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। প্রতিবেশী রতœা বেগম নামে এক মহিলা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে সখিপুর থানায় নিয়ে যায়। পুলিশের পরামর্শে হাসিনার চিকিৎসার জন্য ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করে। এই বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।
ভেদরগঞ্জ হাসপাতাল থেকে গুরুতর আহত হাসিনা বেগম জানায়, ১৫ বছরেরও বেশী সময় ধরে তার স্বামী সৌদি প্রবাসে থাকে। তিনি তার সন্তান হামিম (৮) ও সানজিদা (৫) কে নিয়ে উপজেলার আর্শিনগর ইউনিয়নের ঢালি কান্দি গ্রামের স্বামীর বাড়িতে থাকে। তার ভাসুর মাইনদ্দিন সরদারের ছেলে সেলিম (২৫) মাঝে মধ্যে হাসিনা বেগমের কাছে টাকা দাবি করত। গত ৩ জুলাই শুক্রবার বিকালে সেলিম হাসিনা বেগমের কাছে ২০ হাজার টাকা দাবী করে। সৌদিতে তার স্বামীর কাজ নাই এবং হাসিনার কাছেও কোন টাকা না থাকায় সে সেলিমকে টাকা দিতে রাজি হয় নাই। তখন সেলিম তার মা ও ৩ বোনের সহায়তায় হাসিনাকে মারধর করে। এক পর্যায়ে হাসিনার মাথায় ইট দিয়েও আঘাত করে মাথা ফাঁটিয়ে ফেলে সেলিম।
হাসিনার ভাই জানায়, প্রথমে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসিনাকে সখিপুর থানায় নিয়ে যায়। পুলিশ প্রথমে হাসিনার চিকিৎসা নিশ্চিত করতে হাসপাতালে নিতে বলে। বর্তমানে তার বোনের অবস্থা খারাপ আছে। বোনের চিকিৎসা নিশ্চিত করে মামলা করবে।
সখিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. এনামুল হক বলেন, অনেক সময় গুরুতর আহত বা অসুস্থ রোগী অভিযোগ করার জন্য থানায় আসে। তখন রোগীকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠাই। পরে অভিযোগ করলে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়। হাসিনা বেগমের পক্ষে এখনও কোন অভিযোগ পাওয়া যায় নাই। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।