শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২০ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ রজব ১৪৪৪ হিজরি
শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

শরীয়তপুর জেলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় ৩ নং রামভদ্রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

৩ নং রামভদ্রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষিকাবৃন্দ। ছবি-দৈনিক হুংকার।

শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার ৩নং রামভদ্রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শ্রেষ্ঠ প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্বাচিত হয়েছে। জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০২২ এ জেলা পর্যায়ে বাছাই পর্বে প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়ন, বিভিন্ন উদ্ভাবন, ভাল শিখনসহ সার্বিক বিবেচনায় বিদ্যালয়টিকে জেলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসাবে ঘোষনা করা হয়।
ভেদরগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে একাধিকবার এই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত হয়েছিল। ২৫ সেপ্টেম্বর রবিবার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস জেলার জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০২২ এর জেলা পর্যায়ের শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন ক্যাটাগরির ফল প্রকাশ করেছেন।
জানা যায়, ৩নং রামভদ্রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দীর্ঘ দিন ধরে প্রতিটি ক্ষেত্রে সুনাম অক্ষুন্ন রেখেছে। বিদ্যালয়ে শিক্ষার মান উন্নয়ন, ঝড়ে পড়া রোধে উদ্যোগ গ্রহণ, মিড ডে মিল, বন্ধু শিক্ষক কার্যক্রম, কাব কার্যক্রম, ক্ষুদে ডাক্টার দলসহ নানামুখী শিক্ষনীয় কার্যক্রম চলমান থাকায় ইতিপূর্বে উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্বাচিত হয়। ৩নং রামভদ্রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি শরীয়তপুর জেলায় অন্যরকম একটি বিদ্যালয়ে পরিনত হয়েছে।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ সিরাজুল হক সুজল বলেন, আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের দক্ষ ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে লেখাপড়ার পাশাপাশি বিভিন্ন কার্যক্রম করে আসছি। যার ফলে শিক্ষার্থীদের ঝড়ে পড়া শূণ্যের কোঠায় এবয় উপস্থিতি শতভাগ। তিনি আরও বলেন বিদ্যালয়ে বন্ধু কর্ণার, লাইব্রেরী, সততা স্টল, লস্ট এন্ড ফাউন্ড, মতামত বক্স, মহানুভবতার দেয়াল, নোটিশ বোর্ডসহ অসংখ্য কার্যক্রম চলমান। সকলের দোয়া ও ভালবাসা নিয়ে আমরা বিদ্যালয়টিকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।
৩নং রামভদ্রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সেলিনা পারভিন বলেন, এই বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা খুবই আন্তরিক। বিদ্যালয়ের সুদক্ষ প্রধান শিক্ষক মোঃ সিরাজুল হক সুজল এর নেতৃত্বে শিক্ষার মান উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। শিক্ষক, অভিভাবক, পরিচালনা কমিটি, অভিভাবক শিক্ষক কমিটি (পিটিএ) সহ সকলের সহযোগিতায় বিদ্যালয়টি উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ হওয়ায় আমরা সকলের কাছে কৃতজ্ঞ। এ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ঝড়ে পড়া শুণ্যের কোঠায় এবং উপস্থিতি শতভাগ। বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু কর্ণার, নিজস্ব লাইব্রেরী, সততা স্টল, মতামত বক্স, মহানুভবতার দেয়াল, ছাদ বাগান, নিজস্ব ডাইনিং, নোটিশ বোর্ডসহ অসংখ্য কার্যক্রম চলমান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।