রবিবার, ২ অক্টোবর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
রবিবার, ২ অক্টোবর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

সৃষ্টির সেরা মানুষের সন্তানকেই যত্ন করে মানুষ করতে হয়: ইউএনও ভেদরগঞ্জ

সৃষ্টির সেরা মানুষের সন্তানকেই যত্ন করে মানুষ করতে হয়: ইউএনও ভেদরগঞ্জ
ভেদরগঞ্জ হেডকোয়ার্টার সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন। ছবি-দৈনিক হুংকার।

ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল্লাহ আল মামুন বলেছেন মানুষ হচ্ছে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ জাতি। সেই মানুষের সন্তানকে মানুষ হিসেবে সমাজে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য অনেক যত্ন করতে হয়। এ যত্ন যদি সঠিক না হয় তা হলে আমাদের সন্তান মানুষ না হয়ে অমানুষ হয়ে যায়। কারণ গরুর বাচ্চা এমনিতেই গরু হবে। তবে শিক্ষা ব্যতিত মানুষের সন্তান মানুষ হবে না।
তিনি আরো বলেন, যা আমি পরিশ্রম করে অর্জন করি নাই তা কোটি টাকার হলেও আমার না। এটা আমাদের সন্তানকে শিখাতে হবে। আমাদের সন্তানকে মানুষ রূপে গড়তে চাইলে তাদের জন্য পারিবারিক শিক্ষা অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ। আপনার আমাদের সন্তানকে ৪টি বছর সচেতনতার পরখ করলে সে সন্তান আল্লাহর রহমতে মানুষ হবেই। এ চার বছর হলো নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত।
সন্তানকে মানুষ করার জন্য মায়ের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। এর পরে বাবাদেরও ভূমিকার গুরুত্বপূর্ণ। তিনি ছেলে সন্তানদের মোটরসাইকেল ও মেয়ে সন্তানদের স্মার্টফোন না দেয়ার জন্য অনুরোধ জানান।
তিনি সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) ভেদরগঞ্জ উপজেলা সদরের ভেদরগঞ্জ হেডকোয়ার্টার সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক সমাবেশে প্রধান অতিথি বক্তব্যে এ সব কথা বলেন।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান এর সভাপতিত্ব সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন ভেদরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা একাডেমিক সুপারভাইজার মোহাম্মদ মস্তফা কামাল।
বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক গৌতম চন্দ্র সরকার এর সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সহকারী শিক্ষক মোঃ মোশাররফ হোসেন, আবুল বাশার, অভিভাবক মোঃ রুহুল আমীন সিকদার, শিক্ষার্থী বায়েজিদ ও তানজিলা নোহা।
তিনি আরো বলেন, সন্ধ্যা হলে পশু পাখি নিজের বাসায় ফিরে আসে। কিন্তু ফিরেনা আমাদের অমানুষ সন্তান গুলো। সন্তানদের হাতে কখনো নগদ টাকা দিবেন না। তাদের বিদ্যালয়ে টিফিন নিশ্চিত করবে। আমাদের সুন্দর বাংলাদেশের জন্য আমাদের সন্তানদের যত্নের সাথে মানুষ করতে হবে। সন্তানদের মানুষ করতে পারলে দুনিয়া, কবর ও হাসরে শান্তি পাবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।