শনিবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১০ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
শনিবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভেদরগঞ্জে সরকারি ধান ক্রয়ে লটারী অনুষ্ঠিত

ভেদরগঞ্জে সরকারি ধান ক্রয়ে লটারী অনুষ্ঠিত
ভেদরগঞ্জে সরকারি ধান ক্রয়ে লটারী অনুষ্ঠিত

ভেদরগঞ্জ উপজেলায় সরকারি ভাবে ৩শ ৪৯ মেট্রিক টন ধান ক্রয়ের জন্য লটারীর মাধ্যমে ১শ ৬৮ জন কৃষক নির্বাচন করা হয়েছে।
শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলায় বোরো ধান সংগ্রহের লক্ষ্যে উপজেলার ১৩ ইউনিয়ন ও এক পৌরসভার প্রায় ১ হাজার ২শ কৃষকের মাঝ থেকে লটারির মাধ্যমে সরকারি ভাবে ধান ক্রয়ের জন্য চাষী নির্বাচন করা হয়েছে। এবার ভেদরগঞ্জ উপজেলা কৃষক প্রতি ২ টন করে ধান ক্রয় করবে সরকার। ৪ জুন বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী অফিসার শংকর চন্দ্র বৈদ্য উন্মুক্ত লটারীর মাধ্যমে কৃষক নির্বাচন করেন।
এ সময় উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আকলিমা বেগম লিপি, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার রতন কুমার ঘোষ, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ কফিল উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন সরদার, মিলার আবু তাহের হাওলাদার উপস্থিত ছিলেন।
জানা গেছে, ভেদরগঞ্জ উপজেলা খাদ্য বিভাগ এবার ২৬ টাকা কেজি দরে ৩৪৯ মেট্রিকটন ধান ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। উপজেলার একটি পৌরসভা ও ১৩ টি ইউনিয়নে কৃষি কার্ডধারী ১ হাজার ২৩৪ জন কৃষক রয়েছে। এই বিপুল সংখ্যক কৃষকের নিকট থেকে সরাসরি ধান ক্রয় সম্ভব না হওয়ায় লটারির মাধ্যমে ১৭৮ জন প্রান্তিক কৃষক নির্বাচন করা হয়। নির্বাচিত কৃষকগণ ২ টন হারে ধান সরকারি গুদামে বিক্রি করতে পারবেন।
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার রতন কুমার ঘোষ বলেন, এ বছর উপজেলায় ১৯ হাজার ২শ ২৩ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ করা হয়েছে। আর সরকারি সহায়তা, কৃষি বিভাগের পরামশ্য ও অনুকূল আবহাওয়ার কারণে বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। এবছর উপজেলায় ১ লক্ষ ৯ হাজার ৬৬৪ মেট্রিকটন ধান উৎপাদন হয়েছে। খোলা বাজারে এবার ধানের মূল্য জমি থেকে ২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছে কৃষক।
ভেদরগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি)ও ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী অফিসার শংকর চন্দ্র বলেন, কৃষি বান্ধব সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষকের কথা বিবেচনা করে সরকারি ভাবেধান ক্রয় করছে যাতে প্রান্তিক কৃষক তাদের ধানের ন্যায্যমূল্য পায়।আমারা যথাযথো সচ্ছতা নিশ্চিতের জন্য উন্মুক্ত ভাবে লটারীর মাধ্যমে কৃষক নির্বাচন করেছি। এদের মধ্যে প্রতিজন কৃষক ২ টন করে ধান বিক্রি করতে পারবেন।


error: দৈনিক হুংকারে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।